আরএমপি কমিশনারের কাছে অভিযোগ

ঘুষ না দেয়ায় সাংবাদিক ‘মিথ্যা’ মামলায় অভিযুক্ত

বসতভিটা নিয়ে দ্বন্দ্বের জেরে রাজশাহীর ফটোসাংবাদিক আসাদুজ্জামান আসাদ ও তার পরিবারের সদস্যদের নামে মামলা হয়েছিল। মামলাটির তদন্ত কর্মকর্তা নগরীর রাজপাড়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) টিএম সেলিম রেজা দাবি করেছিলেন ২০ হাজার টাকা। ফটোসাংবাদিক আসাদ তা দিতে পারেননি। তাই তদন্ত না করেই মামলাটিতে আসাদ ও তার পরিবারকে অভিযুক্ত করা হয়েছে।

মঙ্গলবার দুপুরে রাজশাহী মহানগর পুলিশের (আরএমপি) কমিশনার হুমায়ুন কবীরের কাছে লিখিতভাবে এমন অভিযোগ করেছেন আসাদ। তিনি ফটোজার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের রাজশাহী শাখার সভাপতি।

তার দাবি, মামলাটি মিথ্যা। তিনি ঘুষ না দিয়ে তদন্ত কর্মকর্তাকে বলেছিলেন, সরেজমিনে তদন্ত করে যা পাবেন তাই দেবেন। কিন্তু তদন্ত কর্মকর্তা ঘটনাস্থলেই যাননি।

অভিযোগে বলা হয়েছে, নগরীর কাজিহাটা মৌজায় ছয় কাঠার পৈতৃক ভিটায় আসাদ ও তার পরিবার প্রায় ৭০ বছর ধরে বসবাস করে আসছেন। হঠাৎ ২০০২ সালে শহরের গণকপাড়া এলাকার চিহ্নিত ‘ভূমিদস্যু’ জাহিদুল ইসলাম জাহিদ ভিটাটি তার নিজের বলে দাবি করে দখলে নিতে যান। জাহিদুল তার সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে গিয়ে আসাদের পরিবারকে উচ্ছেদের চেষ্টা করেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে আসাদের বাবা আশরাফ হোসেন ২০০২ সালে আদালতে মামলা করেন। জমিটি নিয়ে নিম্ন আদালত এবং উচ্চ আদালতে মামলা চলমান।
তারপরেও জাহিদুল ইসলামের চাচাতো ভাই মেসবাহ উদ্দিন বিভিন্ন সময় তাদের ভিটায় গিয়ে উচ্ছেদের হুমকি দিতে থাকেন।

এরই পরিপ্রেক্ষিতে তাদের হেনস্থা করতে চলতি বছরের ১০ জুন  মেসবাহ উদ্দিন আদালতে একটি মামলা করেন। মামলায় আসাদ ও তার এক ভাই এবং চার বোনকে আসামি করা হয়। মামলায় ১৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবির অভিযোগ করা হয়।

আদালত মামলাটি তদন্তের জন্য রাজপাড়া থানায় পাঠান। এসআই সেলিম রেজা তদন্ত শুরু করেন। কিন্তু মামলায় ঘটনাস্থল হিসেবে যে স্থানের উল্লেখ করা হয়েছে সেখানে না যাওয়ার কারণে আসাদ নিজেই থানায় গিয়ে তার সঙ্গে দেখা করেন। তিনি তাকে ঘটনাস্থলে গিয়ে তদন্ত করার জন্য অনুরোধ জানান।

তখন তদন্ত কর্মকর্তা তাকে বলেন, আপনার এত চিন্তা করার দরকার নাই। আমাকে শুধু হাজার বিশেক টাকা দিয়ে যান, তাহলেই হবে। কিন্তু আসাদ টাকা দিতে পারেননি।
তাই তদন্ত কর্মকর্তা ঘটনাস্থলেও যাননি। এরপর গত ৮ সেপ্টেম্বর তিনি আদালতে মামলার অভিযোগপত্র দাখিল করেন। এতে মামলায় যেসব অভিযোগ আনা হয় সেসবই তুলে ধরা হয়েছে। অভিযোগপত্রে আরও বলা হয়েছে, বাদীর চাচাতো ভাই জাহিদুল ইসলাম মামলার তদন্ত কর্মকর্তাকে মোটা অঙ্কের উৎকোচ দিয়েছেন। তাই তিনি আসাদ ও তার পরিবারকে অভিযুক্ত করেছেন। আসাদ বিষয়টির তদন্ত করে অভিযুক্ত পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানান।

পুলিশ কমিশনারের কাছে অভিযোগপত্র দেয়ার সময় বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সহ-সভাপতি মামুন-অর-রশীদ, রাজশাহী সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক তানজিমুল হক, ফটোজার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক সামাদ খান, মেট্রোপলিটন প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আজিজুল হকসহ অন্য সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় সাংবাদিক নেতারা নগরীর রাজপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহাদাত হোসেন খানের বিরুদ্ধেও মৌখিকভাবে অভিযোগ করেন পুলিশ কমিশনার হুমায়ুন কবীরের কাছে।

সাংবাদিকদের অভিযোগ, ওসি শাহাদাত হোসেন সাংবাদিকদের তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করেন না। কোনো তথ্য জানার জন্য সাংবাদিকরা ফোন করলে তিনি রূঢ় আচরণ করেন। নগরীর গুরুত্বপূর্ণ একটি থানার ওসির এমন ব্যবহার সাংবাদিকদের আহত করে।

পুলিশ কমিশনার হুমায়ুন কবীর সাংবাদিকদের বলেন, এ বিষয়টি তিনি খতিয়ে দেখবেন। আর এসআই সেলিম রেজার বিরুদ্ধে দেয়া লিখিত অভিযোগটি একজন ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তাকে দিয়ে তদন্ত করাবেন। অভিযোগ প্রমাণিত হলে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে এসআই সেলিম রেজা বলেন, ঘুষ দাবি করার মতো কোনো কিছু ঘটেনি। আমি তদন্তে যা পেয়েছি, সেটাই অভিযোগপত্রে উল্লেখ করেছি। আর আমার আগেও একজন কর্মকর্তা মামলাটির তদন্ত করেছেন। ঘুষ চাইলে তিনি চাইতে পারেন। আমি চাইনি।


মেয়র মতিয়ার রহমানের পিতৃবিয়োগ
আমতলী পৌরসভার জননন্দিত মেয়র মো: মতিয়ার রহমানের বাবা বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহন
বিস্তারিত
বাউফলে আন্তর্জাতিক দুর্নীতি বিরোধী দিবস
পটুয়াখালীর বাউফলে ‘দুর্নীতি আমরা করবো না, কাউকে দুর্নীতি করতে দিবো
বিস্তারিত
বাউফলে রোকেয়া দিবসে জয়িতা’দের সম্মাননা
পটুয়াখালীর বাউফলে আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন পক্ষ ও বেগম রোকেয়া দিবস
বিস্তারিত
ডিসেম্বর থেকেই ঢাকা-সিকিম বাস চলাচল
রাজধানী ঢাকা থেকে ভারতের দার্জিলিং ও সিকিমে প্রথমবারের মতো চালু
বিস্তারিত
নাটোরের সদর উপজেলা আ.লীগের নতুন
নাটোরের সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার
বিস্তারিত
র‌্যাব ১২’র অভিযানে ইয়াবাসহ গ্রেফতার
কুড়িগ্রামের ভুরুঙ্গামারী উপজেলার বাসস্ট্যান্ড এলাকায় অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ ইয়াবাসহ
বিস্তারিত