ইউরোপে করোনভাইরাসে প্রথম মৃত্যু

করোনাভাইরাস এবার ফ্রান্সে এক চীনা পর্যটক মারা গেলেন। এশিয়ার বাইরে ইউরোপে এই রোগে এটিই প্রথম মৃত্যু। শনিবার বিবিসির প্রতিবেদনে এ কথা বলা হয়।

ফরাসী স্বাস্থ্যমন্ত্রী অ্যাগনেস বুজিন জানান, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত মারা যাওয়া রোগী একজন নারী ছিলেন। বয়স ৮০ বছর। চীনের হুবেই প্রদেশ থেকে তিনি গত ১৬ জানুয়ারি ফ্রান্সে গিয়েছিলেন। এরপর তাকে ২৫ জানুয়ারি প্যারিসের একটি হাসপাতালে কোয়ারেন্টাইন করে রাখা হয়েছিল।

ফরাসী স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, মারা যাওয়া নারীর মেয়েও করোনাভাইরাসে আক্রান্ত। তবে তিনি সুস্থ হয়ে উঠছেন বলে আশা করা হচ্ছে।

এর আগে ফ্রান্সে করোনাভাইরাসে ১১ জনের আক্রান্তে খবর পাওয়া গিয়েছিলো। অফিসিয়ালি করোনাভাইরাসকে কোভিড -19 বলা হয়।

করোনাভাইরাসে চীনের বাইরে এখন পর্যন্ত ৪টি মৃত্যুর খবর পাওয়া গেলো। এর আগে হংকং, ফিলিপাইন এবং জাপানে তিনজন মারা যান। এবার ফ্রান্সে মৃত্যুর ঘটনা ঘটলো।

চীনে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রায় এক হাজার ৫০০ জনেরও বেশি মানুষ মারা গেছে। বেশিরভাগ মৃত্যুই হুবেই প্রদেশের, যেখানে এটি প্রথম প্রকাশ পেয়েছিল।


করোনায় মৃতদের মরদেহ সংরক্ষণে মর্গ
যুক্তরাষ্ট্রে মহামারি করোনাভাইরাসে মৃতদের মরদেহ সংরক্ষণে বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যের মর্গগুলোতে স্থান
বিস্তারিত
৬ মিনিটের ব্যবধানে করোনায় প্রাণ
যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার ৫১ বছরের দাম্পত্য জীবন পার করছিলেন স্টুয়ার্ট ও
বিস্তারিত
‘আমি তাদের কবর খুঁড়ছি যারা
চীনের উহান থেকে শুরু হওয়া করোনার ঝড়ে উড়ে গেছে বহু
বিস্তারিত
করোনা নিয়ে এখনো যা জানার
আতঙ্ক আর সচেতনার অভাবে করোনাভাইরাস নিয়ে মানুষের মধ্যে নানা বিভ্রান্তির
বিস্তারিত
একদিনেই ৬ হাজার মৃত্যু!
চীনের হুবেই প্রদেশের উহান থেকে উৎপত্তি হওয়ার পর থেকে এরই
বিস্তারিত
নাইজেরিয়ায় লকডাউন না মেনে বের
করোনাভাইরাসের ভয়াল গ্রাসে পড়েছে আফ্রিকার দেশ নাইজেরিয়াও। এ কারণে দেশটিতে
বিস্তারিত