বাংলাদেশে ই-স্ক্যান অ্যান্টিভাইরাসের ১০ বছর উদযাপন

ই-স্ক্যান বাংলাদেশের ১০ বছর পূর্তি উপলক্ষে ১৭ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় রাজধানীর সিক্স সিজন হোটেলে এক বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। ওই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম ইনস্টিটিউটের ডিজি, অতিরিক্ত সচিব একেএম মহিউদ্দিন আহমেদ। ওই অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতির সেক্রেটারি জেনারেল ও স্পিড টেকনোলজির চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন সুমন এবং বার্লি বাংলাদেশের পরিবেশক ইউনিক মালুয়ার লিমিটেডের চেয়ারম্যান এম সিরাজুল ইসলাম, ব্যবস্থাপনা পরিচালক মেহেরুন নাহার, ইউনিকন সল্যুশনের পরিচালক ও স্পিড টেকনোলজির এমডি আবদুল্লাহ আল মামুন, বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতির সভাপতি মো. শাহিদ-উল-মুনীর এবং সারা বাংলাদেশ থেকে আসা বার্লির ডিলাররা।

ই-স্ক্যান অ্যান্টিভাইরাস বর্তমানে বিশ্বের ১৯০টিরও বেশি দেশে ব্যবহৃত হচ্ছে এবং ৫ হাজারেরও বেশি করপোরেট হাউসের দ্বারা ডাটা সুরক্ষা ও ভাইরাস থেকে নিজেদের সিস্টেমকে রক্ষা করছে। বাংলাদেশে ই-স্ক্যান অ্যান্টিভাইরাস দিচ্ছে সর্বনিম্ন দামে সর্বোচ্চ মানসম্মত ‘টোটাল সিকিউরিটি সুট’ (টিএসএস) সল্যুশন, এ ভার্সনটি ইন্টারনেট সিকিউরিটির চাইতেও উন্নত ভার্সন। এতে অ্যান্টিভাইরাসের সঙ্গে আরও রয়েছে অ্যান্টি থেফট, রানসোমওয়ার সিকিউরিটি, সাইবার থ্রেট ম্যানেজমেন্ট, অনলাইন কেনাকাটা প্রটেকশন, ওয়েব ও পেরেন্টাল কন্ট্রোল,  ডাটা প্রটেকশন, ইউএসবি পোর্ট কন্ট্রোল, প্রিন্ট ম্যানেজমেন্ট, অ্যাসেট ম্যানেজমেন্টসহ আরও অনেক সিকিউরিটি সল্যুশন। ই-স্ক্যান অ্যান্টিভাইরাস পিসির রিসোর্স খুব কম শেয়ার করে এবং যেসব পিসির অপারেটিং সিস্টেম পুরোপুরি আপডেট না সেগুলোকে উইন্ডোজ থেকে আপডেট নিয়ে এনে নিরাপত্তা বৃদ্ধি করে, এতে আরও রয়েছে ক্লাউড সিকিউরিটিসহ অ্যাডভান্সড ফায়ারওয়াল ম্যানেজমেন্ট, যা পিসিকে বাইর থেকে যেকোনো আক্রমণের হাত থেকে নিরাপদে রাখে। 

ই-স্ক্যানের রয়েছে এসএমবি ও করপোরেট ভার্সনও, যা গত ১৫ বছর যাবত বিভিন্ন দেশি ও বিদেশি কোম্পানিতে ব্যবহার হয়ে আসছে।

বর্তমান সময়ে অনলাইন যোগাযোগে কম্পিউটারের চাইতেও বেশি ব্যবহার হচ্ছে স্মার্টফোন, আর তাই ২০২০ নববর্ষে ই-স্ক্যান অ্যান্টিভাইরাসের সঙ্গে রয়েছে ১ বছরের ই-স্ক্যান মোবাইল সিকিউরিটি একদম ফ্রি। ই-স্ক্যান মোবাইল সিকিউরিটি ভাইরাস থেকে সুরক্ষার সঙ্গে আরও দিচ্ছে ডাটা লস, প্রাইভেসি থ্রেটস, ডাটা থেফট থেকেও নিশ্চিন্ত থাকার প্রতিশ্রুতি। এর অ্যাডভান্সড অ্যান্টি থেফট ফিচারের মাধ্যমে হারানো বা চুরি যাওয়া মোবাইল ফোনকে দূরে বসে লক করা যায়, ডাটা মুছে ফেলা যায় ও ব্লকও করা যায় এবং প্রয়োজনে মোবাইলের বর্তমান লোকেশন দেখা, যার হাতে মোবাইল আছে তার ছবি পাওয়াÑ এ ধরনের অনেক প্রয়োজনীয় ফিচার এতে সংযুক্ত। এসব সুবিধা এখন ফ্রি উপভোগ করা যাবে একটি ই-স্ক্যান অ্যান্টিভাইরাস কিনলেই।


ডিজিটাল রূপান্তরকে গতিশীল করতে আরও
ডিজিটাল বাংলাদেশের রূপান্তরকে গতিশীল করার পথে প্রতিশ্রুতি ও প্রচেষ্টা বাড়িয়েছে
বিস্তারিত
১৩ লাখ ডেভেলপার নিয়ে এগিয়ে
বিশ্বব্যাপী নিরাপদ ও সুরক্ষিত ইকোসিস্টেম গড়ে তুলতে অব্যাহতভাবে কাজ করে
বিস্তারিত
৬ প্রাইভেসি চেক করতে পারবেন
ব্যবহারকারীদের হাতে তাদের তথ্যের বাড়তি নিয়ন্ত্রণ তুলে দিতে প্রাইভেসি চেকআপ
বিস্তারিত
বাংলাদেশে রিয়েলমির অফিসিয়াল যাত্রা শুরু
স্মার্টফোন ব্র্যান্ড রিয়েলমি ২৪ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশে যাত্রা শুরু করছে প্রেস
বিস্তারিত
করোনা ভাইরাসের প্রভাবে দক্ষিণ কোরিয়ায়
করোনা ভাইরাসের প্রভাবে সবচেয়ে কম ক্ষতি হয়েছে স্যামসাংয়ের। কারণ আগেই
বিস্তারিত
টিএসএ কর্মীদের টিকটক ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা
যুক্তরাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অধীনস্থ সংস্থা ‘ট্রান্সপোর্টেশন সিকিউরিটি অ্যাডমিনিস্ট্রেশন’ (টিএসএ)-এর কর্মীরা
বিস্তারিত