চাঁদপুরে পরীক্ষার্থীকে অপহরণ করে হত্যাচেষ্টা, কিশোর গ্যাংয়ের ১১ সদস্য আটক

চাঁদপুর শহরের মাঝিবাড়ী এলাকার নদী পাড়ে এসএসসি পরিক্ষার্থী পারভেজ ওরফে পাপ্পুকে (১৬) অপহরণ করে তুলে নিয়ে নদীর পারে একদল কিশোর গ্যাং হত্যাচেষ্টাকালে এলাকাবাসীর হস্তক্ষেপে প্রাণে রক্ষা পেয়েছে পারভেজ ওরফে পাপ্পু। বর্তমানে পাপ্পু চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

মারধর করে হত্যাচেষ্টার সময় স্থানীয় এলাকাবাসী ঘেরাও করে কিশোর গ্যাংয়ের ১১ সদস্যকে আটক করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করে। আটক ১১ কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যকে পুলিশ সোমবার দুপুরে আদালতে পাঠালে আদালত তাদের জামিন নামঞ্জুর করে জেলা কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ প্রদান করেন।

ঘটনাটি রোববার দুপুরে ঘটলেও পুলিশ রোববার রাতে চাঁদপুর মডেল থানায় এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে ঘটনা সম্পর্কে সাংবাদিকদের প্রেসব্রিফিং করে বিস্তারিত জানান।

ঘটনা সম্পর্কে জানা যায়, রবিবার দুপুরে শহরের রেলওয়ে আক্কাস আলী একাডেমি পরীক্ষা কেন্দ্র ত্যাগ করার সময়ে সংঘবদ্ধ কিশোর গ্যাংয়ের ১৪/১৫ জনের একটি দল হত্যার উদ্দেশ্যে পাপ্পুকে অটোরিক্সায় উঠিয়ে মাঝি বাড়ি এলাকার নদীর পাড়ে নিয়ে বেদমভাবে পিটিয়ে গুরুতরভাবে আহত করে।

পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় আহত পরীক্ষার্থীকে উদ্ধার করে সদর চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসে। ঘটনাস্থল থেকে স্থানীয়  আবুল দেওয়ান ৯৯৯-এ ফোন করে পুলিশকে অবগত করলে চাঁদপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ নাসিম উদ্দিনের নেতৃত্বে পুলিশ গিয়ে কিশোর গ্যাংয়ের ১১ জনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

এ বিষয়ে মডেল থানার ওসি মোঃ নাসিম উদ্দিন জানান, আহত পারভেজ পাপ্পু সদর উপজেলার ১০নং মডেল লক্ষীপুর ইউনিয়নের বহরিয়া গ্রামের ব্যবসায়ী বেলাল হোসেন বাবুর ছেলে। সে বহরিয়া নুরুল ইসলাম উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ব্যবসায়ি শিক্ষা বিভাগ থেকে এ বছর এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে।

পরীক্ষা শেষে বাড়ি আসার পথে তাকে অপহরণ করে নদীর পাড়ে নিয়ে এ ঘটনা ঘটায়। এ ঘটনায় যারা জড়িত রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এ বিষয়ে আহত পাপ্পুর মা ফাতেমা বেগম জানান, আমার ছেলে পরীক্ষা কেন্দ্র থেকে বাড়ি ফেরার পথে হত্যার উদ্দেশ্যে তাকে নদীর পাড়ে উঠিয়ে নিয়ে যায়। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় পুলিশ উদ্ধার করে হাসপতালে নিয়ে আসে।

প্রত্যক্ষদর্শী আবুল দেওয়ান জানান, একটি ছেলেকে অনেকগুলো ছেলেকে মারধর করতে দেখে আমিসহ কয়েকজন এগিয়ে যাই। আমরা যেতে যেতে ছেলেটিকে ১২ থেকে ১৫ জন কিশোর বেদমভাবে মারধর করে গুরুতর আহত করে। আমি সাথে সাথে ৯৯৯-এ ফোন করে পুলিশকে জানাই।

প্রেস ব্রিফিংয়ের মাধ্যমে চাঁদপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো. জাহেদ পারভেজ চৌধুরী বলেন, একটি ছেলেকে অনেক ছেলে মারধর করেছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ওই ছেলে উদ্ধার করে এবং ঘটনার সাথে জড়িতদের আটক করে নিয়ে আসে। ছেলেটির চিকিৎসা চলছে। এক্সরে করা হয়েছে। রিপোর্ট দেখলে বুঝা যাবে বড় ধরনের কোন ক্ষতি হয়েছে কিনা। এ ঘটনায় মামলা করা হয়েছে। আটকরা থানায় হেফাজতে রয়েছে।


করোনায় নারীর মৃত্যু, নারায়ণগঞ্জের রসুলবাগ
করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলায় এক নারীর মৃত্যু হয়েছে।
বিস্তারিত
সাভার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পিপিই ও
ঢাকার সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে একশ’টি পিপিই ও একটি অ্যাম্বুলেন্স
বিস্তারিত
করোনায় গ্রামে ঘুরতে এসে সড়কে
ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কে ট্রাকের সঙ্গে মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীসহ দুই
বিস্তারিত
মশার কামড়ে কি করোনাভাইরাস ছড়ায়
চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহর থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাস এখন
বিস্তারিত
১১ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ থাকবে
করোনাভাইরাসের প্রতিরোধে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) ১১ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ থাকবে
বিস্তারিত
বগুড়ায় বিদেশফেরত ১৩০০ ব্যক্তির হদিস
বগুড়ায় বিদেশফেরত ১ হাজার ২৯০ জন মানুষকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে
বিস্তারিত