উত্তপ্ত দিল্লিতে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৩

ভারতের নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের (সিএএ) পক্ষে ও বিপক্ষের গোষ্ঠীদের অব্যাহত সংঘর্ষে জ্বলছে দিল্লি। এ ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৩ জনে দাঁড়িয়েছে। ভারতের রাজধানীতে চলমান এ সংঘর্ষে শিশুসহ কমপক্ষে ১৫০ জন আহত হয়েছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির খবরে বলা হয়, রোববার ও সোমবারের মতো গতকাল মঙ্গলবারও উত্তপ্ত ছিল দিল্লি। জাফরাবাদ, মৌজপুর, চাঁদবাগ, কারওয়াল নগরে দিনভর চলে অগ্নিসংযোগ, লুটপাট, গাড়ি ভাঙচুর।

এ ছাড়া সোমবার বহু জায়গায় ১৪৪ ধারা জারি করেছিল দিল্লি প্রশাসন। তবে ১৪৪ ধারা অমান্য করে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে সিএএ বিরোধী ও পক্ষের বিক্ষোভকারীরা। গতকালের সংঘর্ষে নতুন করে মারা যান সাতজন।

এর আগে গত সোমবারের সংঘর্ষে মারা গিয়েছিলেন পাঁচজন। এর মধ্যে এক পুলিশ কর্মকর্তা রয়েছেন। দিল্লির অব্যাহত এ সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৩ জনে।

গতকাল উত্তর-পূর্ব দিল্লির বিভিন্ন এলাকায় সংঘর্ষ দেখা দেয়। বিভিন্ন বিল্ডিং থেকে ধোঁয়া বের হতে দেখা গেছে। দিল্লির রাস্তায় লাঠি, ভাঙা কাঁচের টুকরা, ইট-পাথর পড়ে থাকতে দেখা যায়।

রোববার, সোমবারের মতো মঙ্গলবারের সংঘর্ষেও দিল্লি পুলিশের বিরুদ্ধে নিষ্ক্রিয়তার অভিযোগ উঠেছে। গতকাল সন্ধ্যায় তাদের অবশ্য মাঠে নামতে দেখা গেছে। পুলিশ কাঁদানে গ্যাসের সেল নিক্ষেপ করতে দেখা গেছে। চাঁদবাগ ও ভজনপুরা এলাকায় বিক্ষোভকারী ও পুলিশের সংঘর্ষের ছবিও ধরা পড়েছে।

মঙ্গলবার রাতে জাফরাবাদ, মৌজপুর, চাঁদবাগ, কারওয়াল নগরে কারিফিউ জারি করা হয়। এসব এলাকায় দেখামাত্র গুলির নির্দেশ দিয়েছে দিল্লি পুলিশ। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সেনা মোতায়েনের দাবি উঠেছিল। তবে প্রশাসন জানিয়েছে, যথেষ্ট পুলিশ নামানো হয়েছে। এখনই সেনা নামানোর দরকার নেই।

এদিকে, গত ২৪ ঘণ্টায় তিন দফায় বৈঠকে বসেন ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। গতকাল মঙ্গলবার সংঘর্ষস্থল থেকে মাত্র ১৫ কিলোমিটার দূরত্বে আসেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। মার্কিন প্রেসিডেন্টের সঙ্গে দেখা যায়নি তাকে।


জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন
করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন।
বিস্তারিত
মালয়েশিয়া শ্রমিকদের জন্য সরকারের নতুন
বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাস প্রতিরোধে মালয়েশিয়ায় চলছে মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডার (এমসিও)।
বিস্তারিত
৭০ হাজার ছাড়াল করোনায় মৃত্যু
নভেল করোনাভাইরাসে দেশে প্রতিদিনই লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। সেইসঙ্গে
বিস্তারিত
করোনায় মৃতদের মরদেহ সংরক্ষণে মর্গ
যুক্তরাষ্ট্রে মহামারি করোনাভাইরাসে মৃতদের মরদেহ সংরক্ষণে বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যের মর্গগুলোতে স্থান
বিস্তারিত
৬ মিনিটের ব্যবধানে করোনায় প্রাণ
যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার ৫১ বছরের দাম্পত্য জীবন পার করছিলেন স্টুয়ার্ট ও
বিস্তারিত
‘আমি তাদের কবর খুঁড়ছি যারা
চীনের উহান থেকে শুরু হওয়া করোনার ঝড়ে উড়ে গেছে বহু
বিস্তারিত