ঢাকামুখী লাখো মানুষ: গার্মেন্টস বন্ধ রাখতে বলল বিজিএমইএ

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সারা দেশের নৌ-রেল-সড়কে যান চলাচল বন্ধ রেখেছে সরকার। এতে পুরো দেশ কার্যত লকডাউন। জরুরি প্রয়োজন ছাড়া মানুষকে বাইরে বের হতে দিচ্ছে না আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। দেশের এমন পরিস্থিতিতে সবকিছু উপেক্ষা করে হঠাৎ ঢাকামুখী হন লাখো মানুষ।

ঢাকামুখী ওই মানুষদের অধিকাংশই পোশাকশ্রমিক। আগামীকাল রোববার চাকরিতে যোগ দিতে এসব নিম্ন আয়ের মানুষ ঢাকায় আসতে থাকেন। এমন অনেক ছবি আজ শনিবার দিনজুড়ে ছড়িয়ে পড়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। এতে শুরু হয় সমালোচনা। এমন পরিস্থিতিতে আগামী ১১ এপ্রিল পর্যন্ত পোশাক কারখানা বন্ধ রাখতে বলল বিজিএমইএ। আজ রাতে এমন সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়।  

তৈরি পোশাক কারখানাগুলো ১১ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ রাখতে মালিকদের প্রতি এই আহ্বান জানান বিজিএমইএ সভাপতি রুবানা হক। রাতে সাংবাদিকদের কাছে পাঠানো এক অডিও বার্তায় গার্মেন্টস মালিকদের প্রতি এই আহ্বান জানান তিনি।

দেশে করোনাভাইরাস মহামারি ঠেকাতে গত ২৬ মার্চ থেকে সব অফিস-আদালতে ছুটি ঘোষণা করা হলেও পোশাক কারখানার বিষয়ে কোনো স্পষ্ট সিদ্ধান্ত দেয়নি সরকার। শনি ও রোববার কিছু কারখানা খোলার সিদ্ধান্ত শোনার পর গতকাল শুক্রবার থেকে বিভিন্ন অঞ্চল থেকে ঢাকার পথে রওনা হন অনেক পোশাক শ্রমিক। গণপরিবহণ বন্ধ থাকায় বেশিরভাগই হেঁটে রওনা হন।


সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর সংকেত, হতে
উত্তর বঙ্গোপসাগর এলাকায় বায়ুচাপের তারতম্যের আধিক্য বিরাজ করছে। এর প্রভাবে
বিস্তারিত
ভূমিকম্পে কেঁপে উঠল ঢাকা
মৃদু ভূমিকম্পে কেঁপে উঠল রাজধানী ঢাকা। রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে এ
বিস্তারিত
করোনায় আক্রান্ত জাফরুল্লাহ চৌধুরী
গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর করোনাভাইরাস পরীক্ষায়
বিস্তারিত
শেখ হাসিনাকে ফোন করে নরেন্দ্র
ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে সোমবার (২৫
বিস্তারিত
জাতীয় কবি নজরুলের ১২১তম জন্মজয়ন্তী
বাংলা কবিতার বিদ্রোহী কবিতা ও গানের বুলবুল জাতীয় কবি কাজী
বিস্তারিত
যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধাদের প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধাদের ঈদের
বিস্তারিত