logo
প্রকাশ: ০৩:২৫:৫৯ PM, শনিবার, জানুয়ারী ২, ২০১৬
জাপানে টয়লেট মিউজিয়াম দেখতে উপচে পড়া ভিড়!
অনলাইন ডেস্ক

টয়লেট নাকি কোনও বিলাসবহুল শোওয়ার ঘর?

যাতে গা গরম করে নেওয়ার ব্যবস্থা রয়েছে। রয়েছে যন্ত্রের মাধ্যমে গরম জলে ম্যাসাজ করানোর ব্যবস্থা। রয়েছে এয়ার কন্ডিশনার। জলের তাপমাত্রা ও চাপ বাড়ানো-কমানোর ব্যবস্থা। রয়েছে এয়ার ড্রায়ার। রয়েছে সুবাস ছড়ানোর জন্য ‘পাওয়ার ডিওডোরাইজার’। সঙ্গে রয়েছে সুন্দর, সুরেলা মিউজিক ‘ওতোহিমে’ শোনার ব্যবস্থাও। এমনকী, অটোম্যাটিক সেন্সরও। বাথরুমে ঢুকলেই আপনাআপনি খুলে যাবে ঢাকনা। ভরে যাবে ব্যাকটেরিয়া বিনাশী জলের ফোয়ারায়। জ্বলে উঠবে ঝকঝকে আলো। এটাই সর্বাধুনিক জাপানি প্রযুক্তির টয়লেট। যার নাম- টোটো।

শুধু এই সর্বাধুনিক টয়লেটই নয়, একেবারে আদ্যি কালের বাথরুম থেকে হালের ‘টোটো’, সব রকমের বাথরুম নিয়ে জাপানে তিন মাস হল চালু হয়েছে টয়লেট মিউজিয়াম। যা বানাতে খরচ হয়েছে ছয় কোটি মার্কিন ডলার। চালু হওয়ার পর গত তিন মাসে দেশ, বিদেশ থেকে কম করে তিরিশ হাজার মানুষ এসে ঘুরে গিয়েছেন এই টয়লেট মিউজিয়াম।

যারা এই সর্বাধুনিক টয়লেট বানিয়েছে, সেই সংস্থা ‘টোটো’ ইতিমধ্যেই এমন চার কোটি টয়লেট বানিয়ে বিভিন্ন দেশে পাঠিয়েছে। সূত্র : বিবিসি
 

সম্পাদক ও প্রকাশক : কাজী রফিকুল আলম । সম্পাদক ও প্রকাশক কর্তৃক আলোকিত মিডিয়া লিমিটেডের পক্ষে ১৫১/৭, গ্রীন রোড (৪র্থ-৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২০৫ থেকে প্রকাশিত এবং প্রাইম আর্ট প্রেস ৭০ নয়াপল্টন ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত। বার্তা, সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক বিভাগ : ১৫১/৭, গ্রীন রোড (৪র্থ-৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২০৫। ফোন : ৯১১০৫৭২, ৯১১০৭০১, ৯১১০৮৫৩, ৯১২৩৭০৩, মোবাইল : ০১৭৭৮৯৪৫৯৪৩, ফ্যাক্স : ৯১২১৭৩০, E-mail : [email protected], [email protected], [email protected]