logo
প্রকাশ: ০৫:১৪:৩৭ PM, রবিবার, অক্টোবর ২২, ২০১৭
বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের পছন্দের শীর্ষে ফুডপান্ডা
অনলাইন ডেস্ক

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মধ্যে অনলাইনে খাবার অর্ডার করার প্রবণতা আগের চেয়ে অনেক বেড়ে গেছে বলে এক জরিপে জানিয়েছে ফুডপান্ডা।

অনলাইন খাবার সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান ফুডপান্ডা বিশ্বের ৮টি দেশের ১৭টি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের খাদ্যাভাসের উপর জরিপ চালিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে।

জরিপের ফলাফলে বলা হয়েছে, বিশ্বে অনলাইনে সবচেয়ে বেশি অর্ডার করা হয় চাইনিজ খাবার। এটি মোট অর্ডারের ২৪ শতাংশ। এ তালিকায় বিশ্বে শীর্ষে রয়েছে হংকং বিশ্ববিদ্যালয় এবং বাংলাদেশে ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়।

অনলাইনে খাবার অর্ডার করার মধ্যে দ্বিতীয় (১৮%) এবং তৃতীয় (১২%) অবস্থানে রয়েছে ইতালিয়ান এবং থাই ফুড।

ঢাকার নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের মধ্যে ৪২ শতাংশ শিক্ষার্থী অনলাইনে ফাস্টফুড অর্ডার করেন। তাইওয়ানের ‘শিহহিন বিশ্ববিদ্যালয়ের’ শিক্ষার্থীদের মধ্যে ২৮ শতাংশ ইতালিয়ান খাবার অর্ডার করেন এবং মালয়েশিয়ার এশিয়া প্যাসিফিক ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজি অ্যান্ড ইনোভেশনের শিক্ষার্থীদের মধ্যে ৩৬ শতাংশ মালয়েশিয়ান খাবার অর্ডার করেন। যাদের মধ্যে অধিকাংশই ফুডপান্ডার মাধ্যমে খাবার অর্ডার করেন।

জরিপে জানা গেছে, শনিবার এবং রোববার সবচেয়ে কম খাবার অর্ডার করা হয়।
কুয়ালালামপুর এবং ঢাকার শিক্ষার্থীরা বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার সবচয়ে বেশি খাবার অর্ডার করেন। অধিকাংশ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা বেলা ১১টা থেকে ১২টা এবং সন্ধ্যা ৭টা থেকে ৮টার মধ্যে সবচেয়ে বেশি খাবার অর্ডার করেন। ঢাকার শির্ক্ষার্থীরা রাত ৭টা থেকে ৯টার মধ্যে সবচেয়ে বেশি খাবার অর্ডার করেন।

ফুডপান্ডা জানিয়েছে, জরিপের স্থান ও সময়ের ক্ষেত্রে ভিন্নতা থাকলে অংশগ্রহণকারীদের খাবারের ধরন অনেকটা একই। সময় স্বল্পতার কারণে শিক্ষার্থীরা দ্রুত পছন্দের খাবার হাতে পেতে চান। ফুডপান্ডা তাদের সেদিক মূল্যায়ন করে সেবা দিয়ে যাচ্ছে। 

সম্পাদক ও প্রকাশক : কাজী রফিকুল আলম । সম্পাদক ও প্রকাশক কর্তৃক আলোকিত মিডিয়া লিমিটেডের পক্ষে ১৫১/৭, গ্রীন রোড (৪র্থ-৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২০৫ থেকে প্রকাশিত এবং প্রাইম আর্ট প্রেস ৭০ নয়াপল্টন ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত। বার্তা, সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক বিভাগ : ১৫১/৭, গ্রীন রোড (৪র্থ-৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২০৫। ফোন : ৯১১০৫৭২, ৯১১০৭০১, ৯১১০৮৫৩, ৯১২৩৭০৩, মোবাইল : ০১৭৭৮৯৪৫৯৪৩, ফ্যাক্স : ৯১২১৭৩০, E-mail : [email protected], [email protected], [email protected]