logo
প্রকাশ: ০৫:৫২:৫৭ PM, শনিবার, ডিসেম্বর ১৬, ২০১৭
সখিপুরে দুম্বা খামার
সখিপুর সংবাদদাতা

টাঙ্গাইলের সখিপুর উপজেলার কালিদাস গ্রামের দেলোয়ার হোসেন, উজ্জ্বল হোসেন ও পাশের চতলবাইদ গ্রামের ধলা মিয়া দুম্বা পালন শুরু করেছেন। তারা ছোট ছোট তিনটি খামার গড়ে তুলেছেন। প্রথম অবস্থায় শখের বসে শুরু করলেও এখন তারা বাণিজ্যিকভাবে পালন করছেন।

জানা যায়, কালিদাস উত্তরপাড়া গ্রামের হাজী আবদুল জলিলের ছেলে খামারি দেলোয়ার হোসেন একজন শৌখিন মানুষ। ছোটবেলা থেকেই ছাগল-ভেড়া, কবুতর, হাঁস-মুরগি পালন করা তার শখ ছিল। তিনি প্রবাসী জীবনে সৌদি আরবে থাকা অবস্থায় দুম্বা খামারে কাজ করতেন। সেই অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে ২০১৭ সালের প্রথমদিকে দেলোয়ার হোসেন ৪৫ হাজার টাকায় তিনটি দুম্বা কিনে পালন শুরু করেন। বর্তমানে দেলোয়ার হোসেনের খামারে ছোট বড় মিলিয়ে ১৩টি দুম্বা রয়েছে। তার দুম্বা খামারে দুইজন শ্রমিক ছাড়াও সাংসারিক কাজের ফাঁকে তিনি এবং তার স্ত্রী দুম্বা পরিচর্যায় সময় কাটান। দেলোয়ারের দুম্বা খামারে উৎসাহী হয়ে একই গ্রামের উজ্জ্বল হোসেন এবং পাশের চতলবাইদ গ্রামের ধলা মিয়াও দুম্বা পালন শুরু করেন। তাদের খামারেও ছোট বড় অর্ধশতাধিক দুম্বা রয়েছে।  

দুম্বা খামারি দেলোয়ার হোসেন জানান, দুম্বা বিভিন্ন গাছের কাঁচা পাতা, কাঁচা ঘাস, ছোলা, বাদাম ও ভুসি খেয়ে থাকে। এছাড়াও দুম্বার মাংস খুবই সুস্বাদু। একটি পূর্ণবয়স্ক দুম্বা দেড় লাখ থেকে ২ লাখ টাকা পর্যন্ত বিক্রি করা যায়। তাদের খামার দেখতে প্রতিদিনই বিভিন্ন উপজেলা থেকে দুম্বা পালনের নানা পরামর্শ নিতে আসেন বলেও তিনি জানান। সখিপুর উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. এস এম উকিল উদ্দিন জানান, দেলোয়ার হোসেনের দুম্বা পালন একটি ব্যতিক্রমী উদ্যোগ। খামারি প্রাণিসম্পদ অফিসে এসে পরামর্শ নেন।

সম্পাদক ও প্রকাশক : কাজী রফিকুল আলম । সম্পাদক ও প্রকাশক কর্তৃক আলোকিত মিডিয়া লিমিটেডের পক্ষে ১৫১/৭, গ্রীন রোড (৪র্থ-৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২০৫ থেকে প্রকাশিত এবং প্রাইম আর্ট প্রেস ৭০ নয়াপল্টন ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত। বার্তা, সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক বিভাগ : ১৫১/৭, গ্রীন রোড (৪র্থ-৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২০৫। ফোন : ৯১১০৫৭২, ৯১১০৭০১, ৯১১০৮৫৩, ৯১২৩৭০৩, মোবাইল : ০১৭৭৮৯৪৫৯৪৩, ফ্যাক্স : ৯১২১৭৩০, E-mail : [email protected], [email protected], [email protected]