logo
প্রকাশ: ০৯:১৬:৩৩ AM, মঙ্গলবার, জুলাই ৩, ২০১৮
পেঁপেতে নতুন স্বপ্ন
জাবেদ হোসাইন মামুন, সোনাগাজী

স্বল্প পুঁজিতে রেড লেডি জাতের পেঁপে চাষ করে সফলতার নতুন স্বপ্ন দেখছেন ফেনীর সোনাগাজী উপজেলার আমিরাবাদ ইউনিয়নের চরসোনাপুর গ্রামের আবু ইউছুপ স্বপন। তার বাগানে উৎপাদিত পেঁপে সোনাগাজী উপজেলা ও ফেনী জেলার চাহিদা মিটিয়ে চট্টগ্রামেও বিক্রি করা হচ্ছে। নিজে সফল হওয়ার পাশাপাশি অন্যদেরও পেঁপে চাষে উদ্বুদ্ধ করছেন তিনি।

শুধু পেঁপে নয়, সোনাগাজীর মহুরী সেচ প্রকল্প এলাকার থাকখোয়াজের লামছি মৌজায় পরিকল্পিতভাবে বিভিন্ন প্রজাতির মাছ চাষ করেও সফলতা অর্জন করেন স্বপন। তিন ভাই এক বোনের মধ্যে স্বপন সবার বড়। বাবার মৃত্যুর পর পুরো পরিবারের দায়িত্ব তার কাঁধে। পরিবারের বড় ছেলে হিসেবে সংসারের হাল ধরেন তিনি।

স্বপনের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, বাবার মালিকীয় ২৩ একর জমিতে ২০ বছর ধরে বিভিন্ন প্রজাতির মাছ চাষ করে আসছেন তিনি। ছয় মাস আগে মৎস্য খামারের পাড়ে একটি নার্সারি গড়ে তোলেন। তার নিজস্ব এ নার্সারি থেকে উৎপাদিত রেড লেডি হাইব্রিড নামে পেঁপের চারা দিয়ে পেঁপে চাষ শুরু করেন। প্রায় ১৪ একর পুকুর পাড়ে তিনি পেঁপে গাছ লাগিয়েছেন। চারা বপনের দেড় মাস বয়স থেকে ফলন শুরু হয়েছে। দুই মাস বয়স থেকে পাকা শুরু হয়েছে এ ফল। এ ফল দেখতে যেমন সুন্দর, খেতেও মধুর মতো মিষ্টি। পুষ্টিকর ও সুস্বাদু এ ফলের চাহিদা রয়েছে দেশব্যাপী। দুই মাস বয়সি একটি গাছে এরই মধ্যে ৫০ থেকে ৬০ কেজি পেঁপে ধরেছে। প্রতি কেজি পাকা পেঁপে ৮০ থেকে ১০০ টাকা দরে বিক্রি করা হচ্ছে। প্রতিটি পেঁপে ২ থেকে ৫ কেজি ওজনের।

কীটনাশকমুক্ত পদ্ধতিতে চাষকৃত এ পেঁপের ক্রেতাদের কাছে চাহিদাও রয়েছে অনেক। বাগানে এসে পাইকারি ও খুচরা বিক্রেতারা এ ফল কিনে নিয়ে যাচ্ছেন। সোনাগাজী উপজেলা ও ফেনী জেলার চাহিদা মিটিয়ে স্বপনের পেঁপে চট্টগ্রামেও বিক্রি করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন তিনি। উচ্চফলনশীল এ পেঁপে চাষ করে বিপুল পরিমাণ লাভের আশা করছেন স্বপন। তার দাবি, বর্তমানে ৫০০ গাছে প্রায় ১১ থেকে ১২ টন পেঁপে ধরেছে। স্বল্প পুঁজিতে ব্যাপক অর্থলাভের স্বপ্ন দেখছেন তিনি।

স্বপন দাবি করেন, শুধু পাকা পেঁপে বিক্রি করলে যে তিনি লাভবান হবেন তা নয়, কাচা পেঁপে সবজি হিসেবে বিক্রি করলেও বিপুল পরিমাণ লাভ হবে। তাছাড়া তার নার্সারিতে রেড লেডি প্রজাতির একটি পেঁপের চারা ৫০ টাকা দরে বিক্রি করছেন। তিনি আশা করছেন, আবহওয়া ভালো থাকলে একটি গাছ থেকে আড়াই বছর পর্যন্ত ফলন পাবেন।

সরকারি কোনো পৃষ্ঠপোষকতা ছাড়াই তিনি মাটিতে সোনা ফলিয়ে যাচ্ছেন। তবে সরকারি বা কৃষি বিভাগের পৃষ্ঠপোষকতা পেলে তিনি পেঁপে চাষের মাধ্যমে কৃষি খাতে বিপ্লব ঘটাতে পারবেন বলে জানিয়েছেন।

সম্পাদক ও প্রকাশক : কাজী রফিকুল আলম । সম্পাদক ও প্রকাশক কর্তৃক আলোকিত মিডিয়া লিমিটেডের পক্ষে ১৫১/৭, গ্রীন রোড (৪র্থ-৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২০৫ থেকে প্রকাশিত এবং প্রাইম আর্ট প্রেস ৭০ নয়াপল্টন ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত। বার্তা, সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক বিভাগ : ১৫১/৭, গ্রীন রোড (৪র্থ-৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২০৫। ফোন : ৯১১০৫৭২, ৯১১০৭০১, ৯১১০৮৫৩, ৯১২৩৭০৩, মোবাইল : ০১৭৭৮৯৪৫৯৪৩, ফ্যাক্স : ৯১২১৭৩০, E-mail : [email protected], [email protected], [email protected]