logo
প্রকাশ: ০২:১০:৫১ PM, শুক্রবার, আগস্ট ২৪, ২০১৮
কাঁচা মরিচের ঝাল কমলেও কমেনি পেঁয়াজের ঝাঁজ
অনলাইন ডেস্ক

একদিনের ব্যবধানে কমেছে কাঁচা মরিচের দাম। তবে কোরবানির ঈদের পরও কমেনি দেশি পেঁয়াজের ঝাঁজ। বাজারগুলোতে মাছের সরবরাহ কম। ফলে বাড়তি দামে বিক্রি হচ্ছে ইলিশ।

শুক্রবার (২৪ আগস্ট) নগরীর কাঁচা বাজার ঘুরে দেখা গেছে, কারওয়ানবাজারে পাইকারিতে প্রতি কেজি কাঁচা মরিচ ১শ’ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। অথচ বৃহস্পতিবার (২৩ আগস্ট) ১৮০ টাকা দরে বিক্রি হয়েছে।

পাইকারি ব্যবসায়ীরা জানান, ঈদের দিন যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকায় ঈদের পরের দিন কাঁচা মরিচসহ সবজির দাম চড়া ছিল। এখন সরবরাহ শুরু হয়েছে, তাই দামও কম।

পাইকারি বাজারের প্রভাব পড়েছে খুচরায়। খুচরা বাজারে ১২০ টাকা দরে কাঁচা মরিচ বিক্রি হচ্ছে, যা বৃহস্পতিবার ২শ’ টাকা দরে বিক্রি হয়েছে।

এছাড়া, নগরীর আগারগাঁওয়ের বিএনপি কাঁচাবাজারে কমেছে সবজির দাম। কিছু সবজির দাম কেজি প্রতি ১০ থেকে ১৫ টাকা পর্যন্ত কমেছে। প্রতি কেজি শসা ৪০, ঢেঁড়স ৩০, পটল ৪০, বেগুন ৪০, পেঁপে ১৫, মিষ্টি কুমড়া ২০, করলা ৪০ ও বরবটি ৪০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।

সবজি বিক্রেতা মিনজাল শিকদার বলেন, ঈদের আগে গাড়ি বন্ধ ছিল। এখন চলাচল শুরু করছে বলে সবজি আসছে। ফলে দামও কমছে। খাওয়ার লোক নেই। সামনে দাম আরও কমবে।

সবজির দাম কমলেও বাড়তি ইলিশের দাম। প্রতিটি ৮শ’ গ্রাম ওজনের ইলিশ ১১শ’ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

কমেনি পেঁয়াজের ঝাঁজও। প্রতি কেজি দেশি পেঁয়াজ ৬০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। ভারতীয় মোটা নাসিক পেঁয়াজ ৩৫ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। ঈদের ছুটিতে দোকানগুলোতে নতুন করে মুদি মালামাল সরবরাহ না হওয়ায় আগের দামে বিক্রি হচ্ছে বলে জানান ব্যবসায়ীরা।

সম্পাদক ও প্রকাশক : কাজী রফিকুল আলম । সম্পাদক ও প্রকাশক কর্তৃক আলোকিত মিডিয়া লিমিটেডের পক্ষে ১৫১/৭, গ্রীন রোড (৪র্থ-৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২০৫ থেকে প্রকাশিত এবং প্রাইম আর্ট প্রেস ৭০ নয়াপল্টন ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত। বার্তা, সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক বিভাগ : ১৫১/৭, গ্রীন রোড (৪র্থ-৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২০৫। ফোন : ৯১১০৫৭২, ৯১১০৭০১, ৯১১০৮৫৩, ৯১২৩৭০৩, মোবাইল : ০১৭৭৮৯৪৫৯৪৩, ফ্যাক্স : ৯১২১৭৩০, E-mail : [email protected], [email protected], [email protected]