logo
প্রকাশ: ০১:০৫:০১ AM, শনিবার, আগস্ট ২৫, ২০১৮
আওতাদ
মুফতি শাঈখ মুহাম্মাদ উছমান গনী

আওতাদ আরবি শব্দ। আওতাদ শব্দটি বহুবচন, একবচন হলো ওয়াতাদ। যার অভিধানিক অর্থ হলো স্থাপন করা, স্থির করা, সুদৃঢ় করা। বাগ-বাগিচা বৃক্ষপূর্ণ হওয়া, গাছ-গাছালি ফলে-ফুলে পূর্ণ হওয়া, ফল-মূল পরিপক্ব হওয়া, বাগান দীর্ঘস্থায়ী হওয়া। আওতাদ এর আরও অর্থ রয়েছে, যেমন : কীলক, পেরেক, গজাল, খুঁটি ইত্যাদি। এটি লোহা কাঠ বা যে কোনো ধাতু বা পদার্থ দ্বারা নির্মিত হতে পারে, যা দ্বারা লোহা কাঠ ও যে কোনো দুই বস্তুর মাঝে জোড়া, সংযোগ বা স্থিতি স্থাপন করা হয়। ‘আওতাদুল আরদ’ হলো পর্বতমালা; যেহেতু পর্বত পৃথিবীর স্থিতিস্থাপক। ‘আওতাদুল বিলাদ’ হলো নগরপতিগণ। (লিসানুল আরব, ইবনে মানযূর রহ., খ- : ১৫, পৃষ্ঠা : ২০৪-২০৫, অধ্যায় : ওয়াও)। 

আল কোরআনুল কারিমে রয়েছে, ‘আলাম নাজআলিল আরদা মিহাদা, ওয়াল জিবালা আওতাদা।’ অর্থাৎ ‘আমি কি জমিনকে বিস্তৃত প্রশস্ত করিনি? আর পর্বতসমূহকে কীলক স্বরূপ স্থাপন করিনি?’ (সূরা নাবা : ৬-৭)। 

পরিভাষায় ‘আওতাদ’ হলো তরিকত ও তাসাউফের সালিকীনদের সাতাশ বা ঊনত্রিশ স্তরের একটি স্তর এবং মাজমুআয়ে উছমানীতে বর্ণিত ইনছানের ঊনচল্লিশ পর্বের ঊনবিংশ পর্ব; এটি বিলায়াত ও খিলাফাতের বিশেষ ধাপ। এই স্তরের ওলিগণ বিশেষ মর্যাদাসম্পন্ন ও দায়িত্বশীল এবং ক্ষমতাবান হয়ে থাকেন। সাধারণত তাসাউফের পরিভাষায় আওতাদ তাদের বলা হয়, আধ্যাত্মিক জগৎ পরিচালনা ও নিয়ন্ত্রণ ভার যাদের ওপর অর্পিত হয়। আওতাদগণ বিলায়াতের জগতে স্থিতি স্থাপন করেন, খিলাফতের স্থিতি রক্ষা করেন, ওলিগণের বিভিন্ন স্তরের মাঝে সমন্বয় সাধন করেন, সর্বোপরি সৃষ্টি ও স্রষ্টা এবং আল্লাহ ও বান্দার মাঝে সম্পর্ক স্থাপন করেন ও যোগসূত্র হিসেবে কাজ করেন। 

 

 মুফতি শাঈখ মুহাম্মাদ উছমান গনী

সম্পাদক ও প্রকাশক : কাজী রফিকুল আলম । সম্পাদক ও প্রকাশক কর্তৃক আলোকিত মিডিয়া লিমিটেডের পক্ষে ১৫১/৭, গ্রীন রোড (৪র্থ-৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২০৫ থেকে প্রকাশিত এবং প্রাইম আর্ট প্রেস ৭০ নয়াপল্টন ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত। বার্তা, সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক বিভাগ : ১৫১/৭, গ্রীন রোড (৪র্থ-৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২০৫। ফোন : ৯১১০৫৭২, ৯১১০৭০১, ৯১১০৮৫৩, ৯১২৩৭০৩, মোবাইল : ০১৭৭৮৯৪৫৯৪৩, ফ্যাক্স : ৯১২১৭৩০, E-mail : [email protected], [email protected], [email protected]