logo
প্রকাশ: ১২:৩৪:০৩ PM, বুধবার, সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৮
মধুখালীতে ১ কিলোমিটার কাঁচা রাস্তা দুই উপজেলার মানুষের ভোগান্তি
মধুখালী (ফরিদপুর)

গ্রামীণ জনপথের ১ কিলোমিটার কাঁচা রাস্তা পাকা না করার কারণে চলাচলে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন ফরিদপুরের মধুখালী উপজেলার গাজনা ইউনিয়নে শ্রীনাথপুর গ্রামসহ পার্শ্ববর্তী রাজবাড়ী জেলার বালিয়াকান্দি উপজেলার কয়েকটি গ্রামের শিক্ষার্থীসহ কয়েক হাজার মানুষ।

প্রায় দশ বছরের অধিক সময় পেরিয়ে গেলেও এ এলাকায় উন্নয়নের কোনো ছোঁয়া লাগেনি বলে অভিযোগ স্থানীয়দের।

তাদের আক্ষেপ, এ ব্যাপারে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের কাছে রাস্তাটি চলাচলের উপযোগী করে তুলতে বহুবার আবেদন-নিবেদন করা হলেও কোন সুফল পাওয়া যায়নি।

ভুক্তভোগীরা জনপ্রতিনিধিদের কাছে আশ্বাস পেতে পেতে আশা ছেড়ে দিয়ে বর্ষা মৌসুমে প্রায় হাঁটু সমান কাঁদার মধ্য দিয়েই ওই রাস্তা দিয়ে চলাচল করছেন দুই উপজেলার কয়েক হাজার মানুষ।

পার্শ্ববর্তী রাজবাড়ী জেলার বালিয়াকান্দি উপজেলার জামালপুর ইউনিয়নের জেলা সদরে যেতে সময় বেশি লাগার কারণে মধুখালী উপজেলার গাজনা ইউনিয়নের শ্রীনাথপুর গ্রামের এই সড়কটি দিয়ে যেতে সময় কম লাগায় তারা এই সড়কটি ব্যবহার করে থাকেন।

স্থানীয়রা জানায়, উপজেলার গাজনা ইউনিয়নের নারায়ন চন্দ্র মন্ডলের বাড়ির পার্শ্বের ব্রিজ সংলগ্ন থেকে রাজবাড়ী জেলার বালিয়াকান্দি উপজেলার জামালপুর ইউনিয়নের সাগুড়া গ্রামের সংলগ্ন মো. রাশেদ মোল্যার বাড়ি পর্যন্ত প্রায় ১ কিলোমিটার রাস্তাটি পাকা করনের অভাবে বর্ষা মৌসুমে কর্দমাক্ত হয়ে চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়ে।

ফলে ওই রাস্তা দিয়ে উপজেলার শ্রীনাথপুর গ্রামসহ চলাচলরত স্কুল, কলেজের শিক্ষার্থীসহ এলাকাবাসীকে চরম দূর্ভোগের শিকার হতে হচ্ছে। বিশেষ করে প্রাথমিকে পড়ুয়া কোমলমতি শিশু শিক্ষার্থী, জরুরি রোগিসহ উৎপাদিত কৃষিপণ্য বাজারজাত করতে অবর্ণনীয় দূর্ভোগ পোহাতে হয়।

তাছাড়া শ্রীনাথপুর গ্রামটি কৃষি নির্ভরশীল হওয়ায় কৃষকরা উৎপাদিত কৃষি ফসল মাঠ থেকে আনা এবং বাজারজাত করতে চরম দূর্ভাগ পোহাতে হচ্ছে।

ওই এলাকার জনপ্রতিনিধি ও কৃষক জগদীশ চন্দ্র বিশ্বাস বলেন গ্রামটির ৯০% লোক কৃষি কাজ করে জীবন জীবিকা নির্বাহ করে থাকে। সেই কৃষক মাঠ থেকে দুরে থাক তাদের উৎপাদিত ফসল বাজারে নেওয়ার জন্যও এই সড়কটি দিয়ে কাঁদা-পানি মারিয়ে যেতে হয়।

তিনি আরও বলেন, পার্শ্ববর্তী জেলার বালিয়াকান্দি উপজেলার জামালপুর এলাকার অনেক ছাত্রছাত্রী মধুখালী ও ফরিদপুর শহরের কলেজে লেখাপড়া করার জন্য এই সড়কটি ব্যবহার করে থাকে। এই এক কিলোমিটার সড়কটি পাকা করন করা একান্ত প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেন তিনি।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আ: মান্নান মোল্যা বলেন, আমাদের ইউনিয়ন পরিষদ থেকে কোনো পাকা রাস্তা করার সুযোগ নেই। আমি চেস্টা করব যাতে সড়কটি চলাচলের উপযোগী করে তোলা যায়।

সম্পাদক ও প্রকাশক : কাজী রফিকুল আলম । সম্পাদক ও প্রকাশক কর্তৃক আলোকিত মিডিয়া লিমিটেডের পক্ষে ১৫১/৭, গ্রীন রোড (৪র্থ-৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২০৫ থেকে প্রকাশিত এবং প্রাইম আর্ট প্রেস ৭০ নয়াপল্টন ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত। বার্তা, সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক বিভাগ : ১৫১/৭, গ্রীন রোড (৪র্থ-৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২০৫। ফোন : ৯১১০৫৭২, ৯১১০৭০১, ৯১১০৮৫৩, ৯১২৩৭০৩, মোবাইল : ০১৭৭৮৯৪৫৯৪৩, ফ্যাক্স : ৯১২১৭৩০, E-mail : [email protected], [email protected], [email protected]