logo
প্রকাশ: ০৭:৪২:০৩ PM, মঙ্গলবার, জানুয়ারী ২২, ২০১৯
বল্লাল রাজার দূর্গের অংশ আবিষ্কার
মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি

বঙ্গদেশে ১১৬০-১১৭৯ খিস্টাব্দ পর্যন্ত রাজত্বকারী সেন বংশের ২য় রাজা বল্লাল সেনের রাজধানী ও প্রসাদ ছিল তৎকালীন বিক্রমপুর বর্তমান মুন্সীগঞ্জের রামপালে। তবে কালের বিবর্তনে এটি ইতিহাসের অংশ নিলেও রাজা বল্লাল সেনের প্রসাদ বা দূর্গ হারিয়ে গিয়েছিল বহুকাল আগেই।

এবার মুন্সীগঞ্জের সদর উপজেলার রামপাল ইউনিয়নের বল্লালবাড়ি এলাকায় প্রত্ন খননে বেরিয়ে এসেছে হাজার বছরের পুরনো ঐতিহাসিক রাজা বল্লাল সেনের দূর্গের দেয়ালসহ ইটের ও মৃৎপাতের টুকরা। ঐতিহাসিক এ প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শনের অংশ আবিষ্কারের মধ্য দিয়ে প্রাচীন বিক্রমপুরের ইতিহাসের নতুন দ্বার উন্মোচিত হওয়ার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে।

খনন কাজে নেতৃত্বে থাকা জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রত্নতত্ত্ব বিভাগে অধ্যাপক ড. সুফি মুস্তাফিজুর রহমান জানান, বল্লাল সেনের নামেই এই এলাকা এখনো বল্লাল বাড়ি নামেই পরিচিত। মাটির কয়েক ফুট খনন করা হলে প্রাচীন ইট, ইটের টুকরো, মৃৎপাতের টুকরো, চারকল পাওয়া যায়। কিছুটা গভীর খনন করলে দেয়ালের অংশ বেরিয়ে আসে।

তিনি জানান, গত এক সপ্তাহ যাবত অনুসন্ধান করা হচ্ছে। সোমবার থেকে অগ্রসর বিক্রমপুর ফাউন্ডেশনের তত্ত্বাবধানে পরীক্ষমূলকভাবে ওই খনন কাজ শুরু করা হয়। মঙ্গলবার ২য় দিনেও খননকাজে বেরিয়ে আসে আরো বেশ কিছু প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন। 

মঙ্গলবার সরজমিনে গিয়ে জানা যায়, এলাকাটির স্থানীয় নুরুল ইসলাম শেখের কাঠবাগানে চলছে খনন কাজ। খনন কাজে অংশ নিয়েছেন ড. সুফি মুস্তাফিজুর রহমানসহ চীনের প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপক ড. চাই হুয়ান। এছাড়াও ৪-৫ জন বিশেজ্ঞদের নির্দেশনা নিয়ে কাজ করছে প্রায় শতাধিক শ্রমিক। ইতিমধ্যে স্থানটির ৩ মিটার দৈর্ঘ্য-প্রস্থ ও ৩ মিটারের বেশি গভীর গর্ত খনন করা হয়েছে।

সুফি মুস্তাফিজুর রহমান আরো জানান, এ স্থানটির চারপাশে এখনো পরিখা (ক্যানেল) দৃশ্যমান রয়েছে, যার প্রস্থ ৬০ মিটার। খনন কাজে ইতিমধ্যেই অনেক প্রত্ন নিদর্শন পাওয়া গেছে। আরো খনন করলে আরো বেশি নিদর্শন পাওয়া যাবে বলে আশা করা যাচ্ছে। তবে বল্লাল বাড়ি ইতিমধ্যেই জনবসতি হয়ে গেছে। এখানে বড় ধরনে খনন পরিচালনা করা খুব কঠিন কাজ। এই স্থানটির মাটির নিচেই দূর্গ ও প্রসাদটি আছে। বেশি খনন করা গেলে এর চরিত্র সম্পর্কে বোঝা যাবে। আপাতত পরীক্ষমূলকভাবে খনন চলছে, পরবর্তীতে বড় ধরনের খনন করার সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

সম্পাদক ও প্রকাশক : কাজী রফিকুল আলম । সম্পাদক ও প্রকাশক কর্তৃক আলোকিত মিডিয়া লিমিটেডের পক্ষে ১৫১/৭, গ্রীন রোড (৪র্থ-৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২০৫ থেকে প্রকাশিত এবং প্রাইম আর্ট প্রেস ৭০ নয়াপল্টন ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত। বার্তা, সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক বিভাগ : ১৫১/৭, গ্রীন রোড (৪র্থ-৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২০৫। ফোন : ৯১১০৫৭২, ৯১১০৭০১, ৯১১০৮৫৩, ৯১২৩৭০৩, মোবাইল : ০১৭৭৮৯৪৫৯৪৩, ফ্যাক্স : ৯১২১৭৩০, E-mail : [email protected], [email protected], [email protected]