logo
প্রকাশ: ০৪:৪১:৫০ PM, বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ১৮, ২০১৯
বাস থেকে নামিয়ে ১৪ যাত্রীকে গুলি করে হত্যা
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

পাকিস্তানের বেলুচিস্তানের গোয়াদর জেলার মহাসড়কে বিভিন্ন বাস থেকে ১৪ যাত্রীকে নামিয়ে গুলি করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে জেলার মাকরান কোস্টাল নামের মহাসড়কে এ ঘটনা ঘটে। তবে কারা এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত তাৎক্ষণিকভাবে তা জানা যায়নি।

প্রাদেশিক স্বরাষ্ট্র সচিব হায়দার আলী বলেন, আধাসামরিক বাহিনী ফ্রন্টিয়ার কোরপসের ইউনিফরম পরিহিত বন্দুকধারীর সংখ্যা দুই ডজনের কাছাকাছি হবে।

উপকূলীয় মহাসড়ক মারকানে বাস থামিয়ে গুলি করে ১৪ জনকে হত্যা করেন তারা। এসব যাত্রী চারটি বাসযোগে ওরমারা শহর থেকে বন্দরনগরী করাচিতে যাচ্ছিলেন।

হায়দার আলী বলেন, নিহতদের মধ্যে নৌ কর্মকর্তা ও কোস্টগার্ড সদস্যও রয়েছেন। নিহতদের সবাই পাকিস্তানের নাগরিক।

প্রাদেশিক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মীর জিয়া ল্যাংগভ বলেন, এ হামলার ঘটনায় পূর্ণোদ্যমে তদন্ত শুরু হয়েছে। বন্দুকধারীদের খুঁজে বের করার চেষ্টা করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, এ ধরনের হামলা একেবারে অগ্রহণযোগ্য। হামলায় জড়িত কাউকেই ছাড় দেয়া হবে না।

কোয়েটায় আত্মঘাতী হামলায় ২০ জন নিহত হওয়ার পর এক সপ্তাহও পার হয়নি। এর মধ্যেই নতুন করে এ হামলার ঘটনা ঘটেছে। তবে এখন পর্যন্ত এ হামলার দায় কেউ স্বীকার করেনি।

আফগান ও ইরান সীমান্তবর্তী বেলুচিস্তান হচ্ছে পাকিস্তানের সবচেয়ে দরিদ্র প্রদেশ। এ ছাড়া বিচ্ছিন্নতাবাদী ও ইসলামপন্থী বিদ্রোহীদের অভয়ারণ্য হচ্ছে এটি।

২০১৫ সালেও বেলুচিস্তানের মাসটুং এলাকায় একই ধরনের একটি হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছিল। ওই সময় সশস্ত্র ব্যক্তিরা করাচিগামী দুটি বাসের প্রায় ২৪ জন যাত্রীকে অপহরণ করে নিকটবর্তী পার্বত্য এলাকায় নিয়ে অন্তত ১৯ জনকে গুলি করে হত্যা করেছিল। গত সপ্তাহে বেলুচিস্তানের রাজধানী কোয়েটায় শিয়া হাজারা সম্প্রদায়ের ওপর চালানো এক সন্ত্রাসী হামলায় অন্তত ২০ জন নিহত হয়েছিল। সূত্র: দ্য ডন

সম্পাদক ও প্রকাশক : কাজী রফিকুল আলম । সম্পাদক ও প্রকাশক কর্তৃক আলোকিত মিডিয়া লিমিটেডের পক্ষে ১৫১/৭, গ্রীন রোড (৪র্থ-৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২০৫ থেকে প্রকাশিত এবং প্রাইম আর্ট প্রেস ৭০ নয়াপল্টন ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত। বার্তা, সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক বিভাগ : ১৫১/৭, গ্রীন রোড (৪র্থ-৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২০৫। ফোন : ৯১১০৫৭২, ৯১১০৭০১, ৯১১০৮৫৩, ৯১২৩৭০৩, মোবাইল : ০১৭৭৮৯৪৫৯৪৩, ফ্যাক্স : ৯১২১৭৩০, E-mail : [email protected], [email protected], [email protected]