logo
প্রকাশ: ১০:৫৮:৩০ PM, বুধবার, মে ২২, ২০১৯
মাসআলা

প্রশ্ন : একবার সাহরির আগে আমার স্বপ্নদোষ হয়। কিন্তু আমি গোসল করতে পারিনি। গোসল করতে আমার তীব্র লজ্জাবোধ হচ্ছিল। কারণ আমার মা-বাবা জেনে যাবে যে, আমার স্বপ্নদোষ হয়েছে। তাই গোসল না করে আমি সাহরি খেয়েছি। দুঃখজনক হলো, সেদিন আমি ফজরের নামাজও পড়িনি। তবে পরে গোসল করে আমি ফজরের নামাজ পড়েছি। আমি জানতে চাচ্ছি, আমার সে রোজাটা কি কবুল হয়েছে? কারণ আমার ধারণা হচ্ছে, আমি (স্বপ্নদোষজনিত) অপবিত্র অবস্থায় সাহরি খেয়ে ভুল করেছি। আমার রোজা কি কবুল হবে?

উত্তর : আলহামদুলিল্লাহ। কেউ যদি রাতের মধ্যে স্ত্রী সহবাস করে এবং কোনো কারণে অপবিত্র অবস্থায় সুবহে সাদিক হয়ে যায় তার রোজা শুদ্ধ হবে; অনুরূপভাবে রাতের বেলা অথবা দিনে ঘুমের মধ্যে কেউ যদি অপবিত্র হয়ে যায় তার রোজাও শুদ্ধ হবে। বিলম্বে ভোর হওয়ার পরে গোসল করতে দোষের কিছু নেই। কিন্তু কেউ যদি রমজানের দিনের বেলায় অর্থাৎ ফজরের পর থেকে সূর্য ডোবার আগ পর্যন্ত সময়ের মধ্যে স্ত্রী সহবাস করে তার রোজা নষ্ট হয়। [স্থায়ী কমিটির ফতোয়াসমগ্র (১০/৩২৭)]।
তবে দেরি করে সূর্যোদয়ের পর নামাজ আদায় করা আপনার জন্য হারাম। আপনার ওপর ফরজ ছিল যথাসময়ে নামাজ আদায় করা। আপনার তীব্র লজ্জা এক্ষেত্রে গ্রহণযোগ্য কোনো ওজর নয়; যার কারণে নামাজ আদায়ে এ বিলম্ব করা যেতে পারে। এখন আপনার কর্তব্য হচ্ছে, এ গোনাহ থেকে তওবা করা, ইস্তেগফার করা (ক্ষমা প্রার্থনা করা)। আল্লাহ আমাদের ও আপনাকে সব ভালো কাজ করার তৌফিক দিন।


শাইখ মুহাম্মদ সালেহ আল-মুনাজ্জিদ পরিচালিত ইসলাম কিউ অ্যান্ড 
এ থেকে ভাষান্তর করেছেন 
নুরুল্লাহ তারিফ

সম্পাদক ও প্রকাশক : কাজী রফিকুল আলম । সম্পাদক ও প্রকাশক কর্তৃক আলোকিত মিডিয়া লিমিটেডের পক্ষে ১৫১/৭, গ্রীন রোড (৪র্থ-৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২০৫ থেকে প্রকাশিত এবং প্রাইম আর্ট প্রেস ৭০ নয়াপল্টন ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত। বার্তা, সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক বিভাগ : ১৫১/৭, গ্রীন রোড (৪র্থ-৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২০৫। ফোন : ৯১১০৫৭২, ৯১১০৭০১, ৯১১০৮৫৩, ৯১২৩৭০৩, মোবাইল : ০১৭৭৮৯৪৫৯৪৩, ফ্যাক্স : ৯১২১৭৩০, E-mail : [email protected], [email protected], [email protected]