logo
প্রকাশ: ০৯:১০:৫০ PM, রবিবার, সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৯
মিন্নিকে পাশে বসিয়ে ব্রিফ করলেন তার আইনজীবী
অনলাইন ডেস্ক

বরগুনার রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় জামিনে থাকা নিহতের স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নি হাইকোর্টে এসেছেন। রবিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে তার বাবা মোজাম্মেল হোসেন কিশোরের সঙ্গে তিনি সুপ্রিম কোর্টে আসেন।

মিন্নি তার প্রধান আইনজীবী জেড আই খান পান্নার চেম্বারে যান। উচ্চ আদালতে নিঃস্বার্থভাবে আইনি লড়াই করা অন্য আইনজীবীদের সঙ্গে তিনি সাক্ষাৎ করেন। সেখানে তিনি পরবর্তী আইনি প্রক্রিয়া নিয়ে পরামর্শ করেন। পরে মিন্নিকে পাশে বসিয়ে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন আইনজীবী জেড আই খান পান্না।

মিন্নির ঢাকা আসার বিষয়ে জেড আই খান পান্না বলেন, ‘ডাক্তার ও আইনজীবীর সঙ্গে পরামর্শের জন্য মিন্নি ঢাকা এসেছেন। চার্জশিট একটা মনগড়া উপন্যাস। মূলত মূল আসামিদের এ মামলা থেকে অব্যাহতি দেয়ার জন্য এ ধরনের কারবার করা হয়েছে।’

মিন্নির জবানবন্দি গণমাধ্যমে প্রকাশের বিষয়ে তার আইনজীবী বলেন, ‘আমি তো কোর্টে বসেই দেখেছি। আপিল বিভাগের চেম্বার আদালত যখন আমাদের দেখাতে দিতে বলেছিল, তখন এক নজর দেখেছি। ’

জবানবন্দি প্রত্যাহারের আবেদন করেছেন? এ প্রশ্নের জবাবে মিন্নির আইনজীবী বলেন, আগেই করা হয়েছে। মিন্নি নিজে জেলখানা থেকে করেছে। এটা তো পুলিশের কাছে ছিল।

গত ২ সেপ্টেম্বর হাইকোর্টের দেওয়া জামিন চেম্বার আদালত বহাল রাখায় কারাগার থেকে মুক্তি পান মিন্নি। গত ২৯ আগস্ট মিন্নিকে স্থায়ী জামিন দেন হাইকোর্ট। তবে জামিনে থাকাকালে গণমাধ্যমের সঙ্গে কোনো কথা বলা যাবে না বলে শর্ত দেন আদালত।

গত ২৬ জুন সকালে বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে রিফাত শরীফকে স্ত্রীর সামনে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় নিহতের বাবা দুলাল শরীফ বাদি হয়ে ২৭ জুন ১২ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন।

পরে ১৬ জুলাই সকাল পৌনে ১০টার দিকে মিন্নিকে তার বাবার বাড়ি বরগুনা পৌর শহরের নয়াকাটা-মাইঠা এলাকা থেকে পুলিশ লাইনে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিয়ে আসা হয়। এরপর জিজ্ঞাসাবাদ শেষে রাত ৯টায় তাকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়।

সম্পাদক ও প্রকাশক : কাজী রফিকুল আলম । সম্পাদক ও প্রকাশক কর্তৃক আলোকিত মিডিয়া লিমিটেডের পক্ষে ১৫১/৭, গ্রীন রোড (৪র্থ-৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২০৫ থেকে প্রকাশিত এবং প্রাইম আর্ট প্রেস ৭০ নয়াপল্টন ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত। বার্তা, সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক বিভাগ : ১৫১/৭, গ্রীন রোড (৪র্থ-৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২০৫। ফোন : ৯১১০৫৭২, ৯১১০৭০১, ৯১১০৮৫৩, ৯১২৩৭০৩, মোবাইল : ০১৭৭৮৯৪৫৯৪৩, ফ্যাক্স : ৯১২১৭৩০, E-mail : [email protected], [email protected], [email protected]