logo
প্রকাশ: ০৯:১১:১৫ PM, বুধবার, অক্টোবর ১৬, ২০১৯
আবরারের খুনিদের নামে পাবলিক টয়লেট!
অনলাইন ডেস্ক

বর্বর নির্যাতনের শিকার হয়ে খুন হওয়া বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদের নামে শেরেবাংলা হলের নামকরণ করা হয়েছে। এছাড়া হলের ভেতরের চারটি টয়লেটের নামকরণ করা হয়েছে আবরারের খুনিদের নামে। গুগল মানচিত্রে সার্চ দিলে এমনটাই দেখা যাচ্ছে।

যদিও বুয়েট প্রশাসন বা সরকারিভাবে এরকম কোনো উদ্যোগ নেওয়ার খবর এখনো পাওয়া যায়নি।

বুধবার (১৬ অক্টোবর) সকাল থেকেই স্থান খোঁজার জনপ্রিয় সার্চ ইঞ্জিন গুগল ম্যাপে বুয়েটের শেরেবাংলা হলের নাম পরিবর্তিত হয়ে দেখাচ্ছে শহীদ আবরার হল।

হলের মসজিদের নাম দেওয়া হয়েছে শহীদ আবরার হল মসজিদ। এই হলের ২০১১ নম্বর কক্ষে গত ৬ অক্টোবর মারধরে নিহত হন আবরার ফাহাদ।

এর আগে এসব টয়লেটের কোনো নাম ছিল না। সকাল থেকে গুগল ম্যাপ বলছে, টয়লেটগুলোর নাম এখন কিলার রবিন পাবলিক টয়লেট, কিলার অনিক সরকার পাবলিক টয়লেট, অপ্রেসার রাসেল পাবলিক টয়লেট ও অমিত সাহা পাবলিক টয়লেট।

এমন নামকরণের পেছনের রহস্য এখনো জানা যায়নি। সাধারণত গুগলের কমিউনিটি মেম্বারদের রেফার থেকে কোনো বিষয়ে নামকরণ করা হয় গুগল ম্যাপে।

তথ্যপ্রযুক্তি বিশ্লেষকরা জানান, গুগল কর্মকর্তাদের নজরে আসলে মুছে যেতে পারে নতুন নামগুলো।

প্রসঙ্গত, গেল ৬ অক্টোবর রাতে আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। সোমবার (৭ অক্টোবর) ভোরে শের-ই-বাংলা হলের প্রথম ও দ্বিতীয় তলার সিঁড়ির মধ্যবর্তী জায়গায় আবরারের নিথর দেহ পাওয়া যায়। তার শরীরে অসংখ্য আঘাতের চিহ্ন ছিল। জানা যায়, ওই রাতেই হলটির ২০১১ নম্বর কক্ষে আবরারকে পেটান বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতারা।

পরদিন সোমবার (৭ অক্টোবর) রাজধানীর চকবাজার থানায় মামলা দায়ের করা হয়।

আবরার ফাহাদ বুয়েটের ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের (ইইই) বিভাগের লেভেল-২ এর টার্ম ১ এর ছাত্র ছিলেন। তিনি শের-ই-বাংলা হলের ১০১১ নম্বর কক্ষে থাকতেন। তার বাড়ি কুষ্টিয়া শহরে। কুষ্টিয়া জেলা স্কুলে তিনি স্কুলজীবন শেষ করে নটরডেম কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করেন।

সম্পাদক ও প্রকাশক : কাজী রফিকুল আলম । সম্পাদক ও প্রকাশক কর্তৃক আলোকিত মিডিয়া লিমিটেডের পক্ষে ১৫১/৭, গ্রীন রোড (৪র্থ-৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২০৫ থেকে প্রকাশিত এবং প্রাইম আর্ট প্রেস ৭০ নয়াপল্টন ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত। বার্তা, সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক বিভাগ : ১৫১/৭, গ্রীন রোড (৪র্থ-৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২০৫। ফোন : ৯১১০৫৭২, ৯১১০৭০১, ৯১১০৮৫৩, ৯১২৩৭০৩, মোবাইল : ০১৭৭৮৯৪৫৯৪৩, ফ্যাক্স : ৯১২১৭৩০, E-mail : [email protected], [email protected], [email protected]