logo
প্রকাশ: ০৭:২১:০২ PM, শনিবার, নভেম্বর ৯, ২০১৯
আশুলিয়ায় যুবলীগ নেতা কোপালেন কর্মীদের
সাভার প্রতিনিধি

ঢাকার আশুলিয়ায় যুবলীগের অভ্যন্তরীণ কোন্দলে ইয়ারপুর ইউনিয়নের যুবলীগের কর্মী রিপন সহ অন্তত ৫জনকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করেছে আশুলিয়া থানা যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সুমন ভূইয়ার স্বজরা। আহতদের মধ্যে দুই জনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শনিবার ভোররাত তিনটার দিকে আশুলিয়ার বেরন এলাকায় এই হামলার ঘটনা ঘটেছে। এঘটনায় আহত রিপন মিয়ার স্ত্রী চায়না বেগম আশুলিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে। পুলিশ এ ঘটনায়  অভিযুক্ত উজ্জল ভূইয়াকে গ্রেফতার করেছে।

মামলায় অভিযুক্তরা হলো- আশুলিয়া থানা যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সুমন ভূইয়ার বোন জামাই মোঃ রুবেল আহম্মেদ ভূইয়া (৩৮), জামগড়া ভূইয়াপাড়া এলাকার মোঃ ঝড়– ভূইয়ার ছেলে মোঃ উজ্জল ভূইয়া (৩৫), জসিম উদ্দিনের ছেলে নাজমুল হক ইমু (২২), জালাল মোল্লার ছেলে ময়না মোল্লা (৩৫), মোঃ সম্রাট (৩০), তমিজ মীরের ছেলে সুমন মীরসহ (২৮) অজ্ঞাতনামা আরও ৭-৮ জন।

মামলার এজাহার ও দলীয় সূত্রে জানা যায়, সাবেক সাধারণ সম্পাদক সুমন ভূইয়ার লোকজন আশুলিয়ার বিভিন্ন এলাকায় ব্যানার ফেসটুনের মাধ্যমে যুবলীগের অপপ্রচার ও সন্মানহানী করে আসছিল। এজন্য আশুলিয়া থানা যুবলীগের আহবায়ক কবির হোসেন সকার গত শুক্রবার রাতে সংঠঘঠনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী অপপ্রচারে ব্যবহৃত ব্যানার ফেস্টুন খুলে ফেলার সিদ্ধান্ত নেয়।

শুক্রবার রাতে যুবলীগ কর্মী রিপন মিয়া, ফারুক, শিপু, রিপন, বাবু ও নয়ন ইয়ারপুর ও জামগড়া এলাকায় অপপ্রচারে ব্যবহৃত ব্যানার ফেস্টুন খুলে পিকআপ গাড়িতে করে জামগড়া হইতে নরসিংহপুরের দিকে যাচ্ছিলো।

বিষয়টি জানতে পেরে রুবেল আহম্মেদ ও তার বাহীনির লোকজন যুবলীগ কর্মীদের গতি রোধ করে। পরে ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাদেরকে হত্যার উদ্দেশ্যে কুপিয়ে আহত করে রাস্তায় ফেলে রেখে যায়। স্থানীয়দের সহযোগীতায় তাদেরকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহত যুবলীগ কর্মী রিপন মিয়ার স্ত্রী বলেন, শুক্রবার রাতে রুবেল আহম্মেদ ভূইয়া আমার স্বামী রিপনকে হত্যার উদ্দেশ্যে রামদা দিয়ে মাথায় কোপ দিলে তার মাথা কেটে মগজ বের হয়ে আসে এর পর রুবেল আহম্মেদ ভূইয়া তাকে পারা দিয়ে ধরে এবং উজ্জল ভূইয়া হাতুরী ও ব্যানারের পেরাকযুক্ত কাঠ দিয়ে পিটিয়ে রক্তাক্ত করে এবং অন্যান্যরা লোহার রড দিয়ে রিপনের দুই হাত ও সারা শরীতের পিটিয়ে রক্তাক্ত করে। এছাড়া ময়না মোল্লা রিপনের সঙ্গী বাবুকে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে জখম করে এবং অন্যদেরকে রড ও হাতুরি দিয়ে পিটিয়ে রক্তাক্ত করে।

আশুলিয়া থানা যুবলীগের আহ্বায়ক কবির হোসেন সরকার বলেন, অপপ্রচারের বিষয়ে এর আগে শিমুলিয়া ইউনিয়ন যুবলীগের আহ্বায়ক আমির হোসেন জয় ও আশুলিয়া থানা যুবলীগের সদস্যরা আশুলিয়া থানায় একটি সাধারন ডায়েরী করেছেন। শুক্রবার রাতে সংঠঘঠনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী অপপ্রচারে ব্যবহৃত ব্যানার ফেস্টুন খুলে আনার সময় আমার কর্মীদের কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে।

আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শফিকুল ইসলাম সুমন বলেন, যুবলীগ কর্মীদের মারধরের ঘটনায় আশুলিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এঘটনায় অভিযুক্ত উজ্জল ভূইয়াকে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং বাকি আসামীদের গ্রেফতার অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে জানান তিনি।

সম্পাদক ও প্রকাশক : কাজী রফিকুল আলম । সম্পাদক ও প্রকাশক কর্তৃক আলোকিত মিডিয়া লিমিটেডের পক্ষে ১৫১/৭, গ্রীন রোড (৪র্থ-৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২০৫ থেকে প্রকাশিত এবং প্রাইম আর্ট প্রেস ৭০ নয়াপল্টন ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত। বার্তা, সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক বিভাগ : ১৫১/৭, গ্রীন রোড (৪র্থ-৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২০৫। ফোন : ৯১১০৫৭২, ৯১১০৭০১, ৯১১০৮৫৩, ৯১২৩৭০৩, মোবাইল : ০১৭৭৮৯৪৫৯৪৩, ফ্যাক্স : ৯১২১৭৩০, E-mail : [email protected], [email protected], [email protected]