logo
প্রকাশ: ০৬:২৯:২৯ PM, মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ৩, ২০১৯
সিরাজগঞ্জে হাসপাতাল ফটকে সন্তান প্রসব, এক রোগীর মৃত্যু
সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি

সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে আব্দুল মমিন (৬০) নামে এক রোগীর মৃত্যু ও রহিমা নামের এক প্রসূতি হাসপাতালের প্রধান ফটকের সামনে সন্তান প্রসব করেছেন। কর্তব্যরত চিকিংসকের অবহেলায় এ দুটি ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

অভিযোগে ভুক্তভোগী স্বজনেরা জানান, সিরাজগঞ্জ পৌর এলাকার ধানবান্ধি কলেজ পাড়া মহল্লার আব্দুল মমিনের বুকে প্রচণ্ড ব্যথা নিয়ে সোমবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে ওই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ওই সময় হাসপাতালে চিকিৎসকের অবহেলার কারণেই রাত সাড়ে ১১টার দিকে তিনি মারা যান বলে তার ছোট ভাই কামাল দাবি করেন।

এ বিষয়ে ওই হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. মনোয়ার হোসেন জানান, ডাক্তার স্বল্পতার কারণে এ ঘটনা ঘটেছে। অনেক চেষ্টা করেও এ সমস্যা সমাধান করতে পারছি না।

এদিকে সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার রুপসাচর এলাকার আব্দুর রহিমের স্ত্রী রহিমা খাতুন (২২) গর্ভকালীন সমস্যা নিয়ে রোববার রাতে ওই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ভর্তি হওয়ার পর রক্ত স্বল্পতায় ভুগছে এই মর্মে প্রসূতি রহিমাকে ওই দিন রাতেই কর্তব্যরত চিকিৎসক বনশ্রী শাহা ছাড়পত্র প্রদান করে শজিমেক হাসপাতালে ভর্তির নির্দেশ দেন। এ সময় কর্তব্যরত ওই চিকিৎসক প্রসূতির চিকিৎসার ব্যবস্থা না করে ফোনে কথা বলতে থাকেন। একপর্যায়ে প্রসূতির স্বামী গাইনী ও প্রসূতি ওয়ার্ড থেকে নিচে নামিয়ে হাসপাতালের প্রধান ফটকের সামনে সিএনজিতে ওঠানোর সময় সন্তান প্রসব করেন ওই প্রসূতি।

প্রসূতির স্বামী বলেন, তার স্ত্রী যখন প্রসব বেদনায় ছটফট করছিল তখন তিনি বারবার দায়িত্বরত ডাক্তারকে অনুরোধ করেও সেবা পাননি। অবশেষে হাসপাতালের প্রধান ফটকের সামনে তার স্ত্রীকে সন্তান প্রসব করতে হয়েছে।

এ বিষয়ে ওই হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. রমেশ চন্দ্র সাহা বলেন, ঘটনা দুটি শুনেছি। ছুটি থেকে আসলে তদন্ত কমিটি করে ওই দুটি ঘটনা তদন্ত করা হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

সম্পাদক ও প্রকাশক : কাজী রফিকুল আলম । সম্পাদক ও প্রকাশক কর্তৃক আলোকিত মিডিয়া লিমিটেডের পক্ষে ১৫১/৭, গ্রীন রোড (৪র্থ-৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২০৫ থেকে প্রকাশিত এবং প্রাইম আর্ট প্রেস ৭০ নয়াপল্টন ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত। বার্তা, সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক বিভাগ : ১৫১/৭, গ্রীন রোড (৪র্থ-৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২০৫। ফোন : ৯১১০৫৭২, ৯১১০৭০১, ৯১১০৮৫৩, ৯১২৩৭০৩, মোবাইল : ০১৭৭৮৯৪৫৯৪৩, ফ্যাক্স : ৯১২১৭৩০, E-mail : [email protected], [email protected], [email protected]