আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ২৫-১১-২০১৭ তারিখে পত্রিকা

পেঁপে চাষে বাজিমাত

খাদেমুল ইসলাম মামুন, ঘাটাইল
| সুসংবাদ প্রতিদিন

পেঁপে চাষ করে অল্প সময়ে বাজিমাত করেছেন টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার সাগরদীঘি হাতিমারা এলাকার বাদল মিয়া। অর্থনৈতিকভাবে হয়েছেন স্বাবলম্বী; পেয়েছেন রোলমডেলের খ্যাতি। জানা গেছে, বাদল মিয়া অল্প বয়সেই সংসারের হাল ধরেন। কর্মজীবন বলতে কৃষি কাজ। লাল মাটির পাহাড়ি এলাকায় তিনি কলা চাষ করে কৃষিজীবন শুরু করেন। তবে পরে ঝোঁকেন পেঁপে চাষের দিকে।

আলাপকালে বাদল মিয়া জানান, গত বছর পেঁপে চাষে তিনি ৫ লাখ টাকা বিনিয়োগ করেন। ২৫ লাখ টাকার বেশি পেঁপে বিক্রি করেন। ৭ থেকে ৮ মাসের মধ্যে এ অর্থ পান। এতে পেঁপে চাষের প্রতি আরও আগ্রহী হয়ে ওঠেন তিনি। পরে তিনি ব্যাপক পরিসরে পেঁপে বাগান করার সিদ্ধান্ত নেন। চলতি বছরের শুরুর দিকে তিনি ৩৬ বিঘা জমি লিজ নিয়ে পেঁপে বাগান করেন। কৃষক বাদল মিয়া বলেন, উচ্চফলনশীল জাত ও রেড লেডি জাতের পেঁপের চারা দিয়ে তিনি বাগান করেছেন। জমি লিজ, চারা, সার, কীটনাশক, শ্রমিকসহ নানা খরচ বাবদ এ পর্যন্ত আমার ২০ লাখ টাকা ব্যয় হয়েছে। পেঁপে পরিপক্ব হওয়ার আগেই পাইকারের কাছে সম্পূর্ণ বাগান বিক্রি করেছি ৫০ লাখ টাকায়। মাকড়সা ও ছত্রাক ছাড়া পেঁপে বাগানে আমি তেমন কোনো সমস্যা পাইনি। পেঁপে চাষে অর্থনৈতিকভাবে সরকারি সহযোগিতা পেলে দেশের অনেক বেকার সমস্যা সমাধান করা সম্ভব। আমার এলাকার অনেকেই এখন পেঁপে চাষে আগ্রহী। এ বিষয়ে ঘাটাইল উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোঃ আবদুল মতিন  বিশ্বাস বলেন, বাদল মিয়া একজন আদর্শ কৃষক। উপজেলায় তিনি একজন বড় পেঁপে চাষি। আমরা বিজ্ঞানসম্মত পদ্ধতি ও পরামর্শ দিয়ে তাকে সার্বিক সহযোগিতা করছি। তাকে দেখে অনেক কৃষক এখন পেঁপে চাষে আগ্রহী। তাছাড়া পেঁপে বাগান করে খুব অল্প সময়েই লাভবান হওয়া যায়।