আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ১-০৯-২০১৮ তারিখে পত্রিকা

রাষ্ট্রের খরচ কমাতে হেলিকপ্টারে অফিস করছেন ইমরান!

আলোকিত ডেস্ক
| আন্তর্জাতিক

সদ্য নির্বাচিত পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বাসা থেকে নিজ কার্যালয়ে যেতে হেলিকপ্টার ব্যবহার করছেন। আর তার এ অভ্যাস নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোতে চলছে ব্যাপক উপহাস আর বিতর্ক। কারণ ক্ষমতায় আসার পরপরই সাবেক এ ক্রিকেট তারকা ঘোষণা দিয়েছিলেন সরকারি ব্যয় সংকোচনের। শুধু তাই নয়, সেই ঘোষণায় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অতিরিক্ত গাড়ি ও বিমানবন্দরের ভিআইপি নিরাপত্তা কাটছাঁট করার কথা বলেন ইমরান খান। এছাড়া তিনি নিজেও বিলাসবহুল জীবনযাপন করবেন না বলে ঘোষণা দেন। অথচ এখন বাসা থেকে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে যাওয়ার মাত্র ৯ দশমিক ৩ মাইল (১৫ কিলোমিটার) দূরত্বের পথে ইমরান খান কি না ব্যবহার করছেন হেলিকপ্টার! এদিকে ইমরান খানের পক্ষ নিয়ে দেশটির তথ্যমন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরী আবার এমন এক তথ্য দিয়েছেন, সেটি চলমান উপহাসের আগুনে আরও ঘি ঢেলে দিয়েছে। এক সংবাদ সম্মেলনে মন্ত্রী দাবি করেন, ইমরান খানের জন্য হেলিকপ্টার ছিল সবচেয়ে সস্তা যানবাহন, যাতে কি না কিলোমিটারপ্রতি মাত্র ৫৫ রুপি ব্যয় হয়। ‘আমি নিজে গুগলে এটি দেখেছি’, এ কথাও যোগ করেন তিনি। তথ্যমন্ত্রীর এমন আজগুবি তথ্য শুনে সে দেশের মানুষ রীতিমতো ভড়কে যান। হেলিকপ্টারে যাতায়াত এত সস্তা! এ নিয়ে ঠাট্টা-তামাশায় কেবল সোমবারেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে টুইটারে হ্যাশ ট্যাগ দিয়ে ১৬ হাজারের বেশি টুইট পোস্ট হয়। ইমরান খানের হেলিকপ্টারযাত্রাকে সে দেশের বহুল ব্যবহৃত রাইডিং সার্ভিস ‘করিম’ এর সঙ্গে তুলনা করে তামাশা করতে থাকেন অনেকেই। ‘করিম’ নিজেও তাদের টুইটারে ইমরান খানের ওই ঘটনাকে উপহাস করে সাশ্রয়ী মূল্যে সাধারণ যাত্রীদের উড়াল যাতায়াতের বিভিন্ন অফার দেয়। অথচ কিলোমিটারপ্রতি হেলিকপ্টারের ব্যয় বিষয়ে খোঁজ নিতে গিয়ে জানা যায় অন্য তথ্য। বিবিসি উর্দুর গবেষণা অনুসারে, আনুষঙ্গিক খরচ বাদ দিলেও ইমরান খানের ব্যবহার করা অগাস্টা ওয়েস্টল্যান্ড এডব্লিউ-১৩৯ মডেলের হেলিকপ্টারে কিলোমিটারপ্রতি ব্যয় হয় ১৬ হাজার রুপি। তথ্যমন্ত্রী অবশ্য সংবাদ সম্মেলনে ইমরান খানের হেলিকপ্টার ব্যবহারের পক্ষে আরও কিছু কারণ উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর যাতায়াতের জন্য আমাদের হাতে দুটি উপায় আছে, হেলিকপ্টার বাদ দিলে তাকে গাড়িবহরে করে যেতে হবে, যা কি না রাস্তায় যানজট তৈরি করবে।