আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ৩-০৯-২০১৮ তারিখে পত্রিকা

হোসেনপুরে প্রতিবাদে ক্লাস বর্জন

প্রধান শিক্ষকের দায়িত্বে জুনিয়র শিক্ষক

হোসেনপুর প্রতিনিধি
| দেশ

জুনিয়র শিক্ষককে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব দেওয়ার প্রতিবাদে কিশোরগঞ্জের হোসেনপুর পাইলট বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের শিক্ষকরা রোববার অনির্দিষ্টকালের জন্য ক্লাস বর্জন কর্মসূচির পঞ্চম দিন অতিবাহিত করেন। প্রধান শিক্ষক জিন্নাত আক্তার ২৫ জুন অবসরে গেলে ১৬ আগস্ট স্কুল ব্যবস্থাপনা কমিটি জনবল কাঠামো ও এমপিও নীতিমালা উপেক্ষা করে ৫ নম্বর সহকারী (ধর্মীয়) শিক্ষক প্রদীপ কুমার সরকারকে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব দেয়। এতে সহকারী প্রধান শিক্ষক কাজী আসমা বেগমসহ ১৭ জন শিক্ষক ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান, জেলা প্রশাসক, দুর্নীতি দমন কমিশনসহ সংশ্লিষ্ট দপ্তরে অভিযোগ দিয়ে প্রতিকার দাবি করেন। ঢাকা বোর্ডের স্কুল পরিদর্শক প্রীতিশ কুমার সরকারকে তদন্তপূর্বক প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেওয়া হয়। বিষয়টি এখন অন্যান্য তদন্ত কমিটিসহ জেলা প্রশাসক তদন্ত করছেন। ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক প্রদীপ কুমার সরকার স্বাক্ষরিত জুলাই মাসের বেতন ও ঈদুল আজহার বোনাস বিল ব্যাংকে ফেরত পাঠালে ঈদের আগে শিক্ষক-কর্মচারীরা বেতন-বোনাস পাননি। বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক ও বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি হোসেনপুর উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মুখলেছুর রহমান বলেন, জটিলতা নিরসন না হওয়া পর্যন্ত ক্লাস বর্জন অব্যাহত থাকবে। ঢাকা বোর্ডের বিদ্যালয় পরিদর্শক প্রীতিশ কুমার সরকার মুঠোফোনে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে পরামর্শ করে বিধিমোতাবেক কার্যকরী ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দেন।