আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ৫-০৯-২০১৮ তারিখে পত্রিকা

জুড়ী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স উদ্বোধনে নাসিম

আগামী নির্বাচন শেখ হাসিনার অধীনেই হবে

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি
| শেষ পাতা

মৌলভীবাজারের জুড়ী উপজেলায় মঙ্গলবার নবনির্মিত ৫০ শয্যাবিশিষ্ট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের উদ্বোধন করেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম ষ আলোকিত বাংলাদেশ

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী ও ১৪ দলের সমন্বয়ক মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে আর কখনও নির্বাচন এ দেশে হবে না। আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন শেখ হাসিনার অধীনেই হবে। এসব দুঃস্বপ্ন ভুলে সাহস থাকলে মাঠে এসে খেলেন। মঙ্গলবার মৌলভীবাজারের জুড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স উদ্বোধন শেষে উপজেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মোহাম্মদ নাসিম এসব কথা বলেন। 

মোহাম্মদ নাসিম বলেন, বিএনপি যদি নির্বাচনের মাঠে না আসে, তাহলে খালি মাঠেই গোল দেবে আওয়ামী লীগ। নির্বাচন কমিশন রেফারির ভূমিকা পালন করবে। মাঠের খেলায় শেখ হাসিনা গোল মিস করবে না। বিএনপি আগের বার ট্রেন মিস করে আম ও ছালা দুটোই হারিয়েছে। এবার আশা করব মাঠে এসে খেলবে। জনগণের রায় যা হবে, আমরা তা মেনে নেব। বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়ার সমালোচনা করে মন্ত্রী বলেন, তিনি দুর্নীতির দায়ে জেল খাটছেন। এখানে আওয়ামী লীগের কোনো ভূমিকা নেই। আদালত তাকে কারাগারে পাঠিয়েছেন, এটা আওয়ামী লীগ করেনি। খালেদা জিয়া জঙ্গিবাদকে প্রশ্রয় দিয়েছিলেন, কিন্তু শেখ হাসিনা এসে কঠোর হাতে জঙ্গিদের দমন করেছেন। মন্ত্রী বলেন, বিএনপি যুদ্ধাপরাধী ও বঙ্গবন্ধুর খুনিদের সঙ্গে নিয়ে ঘুরেছে; বিচারের নামে তারা প্রহসন করেছে। কিন্তু আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসে এসব খুনি ও অপরাধীর বিচার করেছে। তিনি বিএনপি-জামায়াতকে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, নির্বাচনকে কেন্দ্র করে কোনো ধরনের জ্বালাও-পোড়াও করলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী আপনাদের প্রতিহত করবে।  ষড়যন্ত্র করে অন্যভাবে ক্ষমতায় যাওয়ার স্বপ্ন দেখবেন না। নির্বাচন প্রকাশ্যে হবে, সাংবাদিকদের ক্যামেরা সব দেখবে। ভয় পাবেন না। মাঠে আসেন। মাঠের খেলায় কেউ হারবে, কেউ জিতবেÑ এটাই নিয়ম। 
জাতীয় সংসদের হুইপ মো. শাহাব উদ্দিনের সভাপতিত্বে সমাবেশে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মৌলভীবাজার-২ আসনের সংসদ সদস্য আবদুল মতিন, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নেছার আহমদ, সাধারণ সম্পাদক মিছবাউর রহমান, জুড়ী উপজেলা চেয়ারম্যান গুলশান আরা মিলি, মৌলভীবাজার পৌরসভার মেয়র ফজলুর রহমান, জুড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক বদরুল হোসেন প্রমুখ। এছাড়া স্বাস্থ্য বিভাগের পরিচালক হাসেম খান, জেলা প্রশাসক মো. তোফায়েল ইসলাম, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শাহজালাল, ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন বিরেন্দ্র ভৌমিক, জুড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) অসীম কুমার বণিকসহ সরকারি প্রশাসনিক কর্মকর্তা এ সময় উপস্থিত ছিলেন। 
এর আগে দুপুরে জুড়ী উপজেলায় নবনির্মিত ৫০ শয্যাবিশিষ্ট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স উদ্বোধন করেন স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনামন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম। ২০১৩ সালের ৯ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ভিত্তিপ্রস্তুর স্থাপন করেছিলেন। জুড়ী উপজেলা হাসপাতাল সূত্র জানায়, উপজেলার বাছিরপুরে মৌলভীবাজার-চান্দগ্রাম আঞ্চলিক মহাসড়কের পাশে সরকারের অধিগ্রহণকৃত ৫ একর জমিতে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি নির্মিত হয়। জুড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মহিউদ্দিন আহমেদ জানান, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি ৫০ শয্যার হলেও ৩১ শয্যার আদলে চলছে। এরপরও পর্যাপ্ত লোকবল, শয্যা, চিকিৎসার সরঞ্জাম ও ওষুধ সরবরাহ নেই; নেই অ্যাম্বুলেন্স ও গ্যাস সংযোগ। মাটির চুলায় প্রয়োজনীয় কাজ সারতে হচ্ছে। এ কারণে জরুরি ও অন্তর্বিভাগ চালু করা সম্ভব হচ্ছে না। স্বাস্থ্যমন্ত্রীর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের পর হয়তো সব সমস্যার সমাধান হবে। এর আগে সিভিল সার্জনের অতিরিক্ত দায়িত্বে থাকা মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. বিনেন্দু ভৌমিক জানান, জুড়ী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ৫০ শয্যার প্রশাসনিক অনুমোদন ও কমপ্লেক্সটি আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের পর লোকবলসহ অন্যান্য সমস্যার সমাধান হবে বলে আশা করা যাচ্ছে।