আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ৫-০৯-২০১৮ তারিখে পত্রিকা

মিঠামইনে কৃষক হত্যার জেরে ভাঙচুর-লুটপাট

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি
| দেশ

কিশোরগঞ্জের হাওর উপজেলা মিঠামইনের বজকপুরে ২৫ আগস্ট কৃষক বাবুল মিয়া হত্যার জেরে লোকজন ৩০টি পরিবারের বাড়িঘর, দোকানপাটে হামলা, ভাঙচুর ও লুটপাট চালায়। ২৮ আগস্ট ৩৭ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরও ১০ থেকে ১২ জনকে আসামি করে থানায় মামলা করা হয়। ফলে গ্রেপ্তার এড়াতে আসামি পক্ষের লোকজন পালিয়ে যাওয়ায় বজকপুর গ্রাম এখন নারী-পুরুষশূন্য হয়ে পড়েছে। শুধুমাত্র বাদীপক্ষের কয়েকটি পরিবার এখানে বসবাস করছে। সরেজমিন জানা গেছে, দুলাল মেম্বার গোষ্ঠীর পক্ষের লোকজনের আক্রমণে আমির হোসেন গোষ্ঠীর পক্ষের বাবুল মিয়া আহত হলে জেলা সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়। চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। তার মারা যাওয়ার খবরে দুলাল মেম্বার গোষ্ঠীর লোকজন পালিয়ে যান। এ সুযোগে একটি মহল লুটতরাজ করে। সাংবাদিকরা খবর সংগ্রহে গেলে কয়েকজন নারী গ্রামে আসেন। গৃহবধূ স্বপ্না  বেগম ও জুয়েনা আক্তার জানান, ঘটনার পরদিন থেকে আমির হোসেনের পক্ষের লোকজন তাদের বাড়িসহ অন্যান্য বাড়িঘরে লুটতরাজ ও ভাঙচুর চালায়। তারা ঘরের ফ্রিজ, খাট-পালঙ্ক থেকে শুরু করে টাকা, স্বর্ণালংকার, দেড়-দুই হাজার মণ ধান-চাল, ৫০ থেকে ৬০টি গরু-বাছুর, নৌকা, পাওয়ার টিলার ইত্যাদি নিয়ে যায়। এমনকি খাবার থালা-বাসন, রান্নার ডেক-ডেকচি পর্যন্ত তারা লুট করে, ঘরের টিনের বেড়া ও চাল খুলে নেয়। সরেজমিন ঘুরে কয়েকটি বাড়ির শুধু শূন্য ভিটেটুকু পড়ে রয়েছে দেখতে পাওয়া যায়।