আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ৮-০৯-২০১৮ তারিখে পত্রিকা

পানিতে ডুবে শিশুসহ তিনজনের মৃত্যু

আলোকিত ডেস্ক
| দেশ

পুকুরের পানিতে ডুবে লালমনিরহাটে যুবক, গোপালগঞ্জে শিশু ও চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে এক শিশু শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে।  প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরÑ

লালমনিরহাট : লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলার তেঁতুলিয়া গ্রামে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় পুকুরের পানিতে ডুবে ফজর আলী নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। তিনি একই গ্রামের জামাল উদ্দিনের ছেলে। এলাকাবাসী জানায়,  ফজর আলী দীর্ঘদিন ধরে মৃগী রোগে ভুগছিলেন। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বাড়িসংলগ্ন একটি পুকুরে পড়ে গেলে তার মৃত্যু ঘটে। চলবলা ইউপি চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান মিজু মৃত্যুর সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
গোপালগঞ্জ : গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার বেদগ্রামে শুক্রবার পুকুরের পানিতে ডুবে ইয়াছিন মোল্লা নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। সে গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার বেদগ্রাম এলাকার নানু মোল্লার ছেলে। এলাকাবাসী ও পরিবার সূত্রে জানা গেছে, বাড়ির উঠানে খেলতে গিয়ে ইয়াছিন এক সময় সবার অজান্তে বাড়ির পাশের একটি পুকুরে পড়ে যায়। অনেক খোঁজা-খুজির পর ইয়াছিনকে খুঁজে না পেয়ে ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেওয়া হয়।  ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা তাকে উদ্ধার করে গোপালগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত ডাক্তার মৃত ঘোষণা করেন।
হাটহাজারী : চট্টগ্রামের হাটহাজারী পৌর এলাকার পশ্চিম দেওয়াননগরস্থ রঙ্গীপাড়ায় শুক্রবার পুকুরের পানিতে ডুবে মো. সাঈদ নামের এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। সে আলীপুর তালিমুল কোরআন নূরানি মাদ্রাসার প্রথম শ্রেণির ছাত্র। মাদ্রাসা বন্ধ থাকায় সাঈদ সঙ্গীদের নিয়ে বাড়ির পাশে খেলতে গিয়ে সবার অজান্তে পুকুরের পানিতে পড়ে ডুবে যায়। খেলার সাথীরা তার পরিবারের লোকজনকে খবর দিলে তারা সাঈদকে পুকুর থেকে উদ্ধার করে একটি প্রাইভেট হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। সাঈদের বাবা একজন হোটেল কর্মচারী। বাড়ি নোয়াখালী হলেও তারা দীর্ঘদিন ধরে সদরের রঙ্গীপাড়া আবদুল লতিফবাড়ি এলাকায় ভাড়াটিয়া হিসেবে বসবাস করতেন।