আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ৮-০৯-২০১৮ তারিখে পত্রিকা

জেরুজালেমে দূতাবাস রাখতে প্যারাগুয়েকে যুক্তরাষ্ট্রের চাপ

আলোকিত ডেস্ক
| আন্তর্জাতিক

জেরুজালেমে প্যারাগুয়ের দূতাবাস রাখতে দেশটির নতুন সরকারকে চাপ দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। জেরুজালেম থেকে দূতাবাস আবারও তেলআবিবে সরিয়ে নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন প্যারাগুয়ের প্রেসিডেন্ট মারিও আব্দো বেনিতেজ। এ ঘোষণার পরপরই এক ফোনালাপে মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট  মাইক পেন্স  বেনিতেজকে তার অবস্থান থেকে সরে আসার জন্য আহ্বান জানান। এক বিবৃতিতে হোয়াইট হাউজ জানায়, মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট পেন্স দূতাবাস সরিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত পুনরায় বিবেচনা করার জন্য দক্ষিণ আমেরিকার দেশটির প্রেসিডেন্টের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। প্যারাগুয়ের নতুন প্রেসিডেন্ট বেনিতেজকে তার পূর্বসূরি হোরাসিও কারটেসের সিদ্ধান্তে অটল থাকতে জোরালো উৎসাহ দিয়েছেন পেন্স। তবে জেরুজালেমে দূতাবাস রাখার ব্যাপারে মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্টের অনুরোধের  জবাবে বেনিতেজ কী বলেছেন বিবৃতিতে সে সম্বন্ধে কিছু জানানো হয়নি। গেল বছরের ডিসেম্বরে জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দিয়ে যুক্তরাষ্ট্র তাদের দূতাবাস সেখানে সরিয়ে নেওয়ার ঘোষণা দেয়। ওইসময় যুক্তরাষ্ট্রকে অনুসরণ করে প্যারাগুয়ের তৎকালীন প্রেসিডেন্ট কার্টেস সরকারও তাদের  দূতাবাস স্থানান্তরের ঘোষণা দিয়েছিলেন। কিন্তু ওই সিদ্ধান্তের সঙ্গে দ্বিমত জানিয়েছিলেন বেনিতেজ। জেরুজালেমে প্যারাগুয়ের দূতাবাস স্থানান্তরের মাত্র তিন মাসের মাথায় সিদ্ধান্ত পরির্বতন করেছে বেনিতেজের নতুন সরকার।  বেনিতেজ বলছেন, তিনি মধ্যপ্রাচ্যে একটি স্থায়ী শান্তি অর্জন করতে চান। তবে প্যারাগুয়ের এ সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ হয়েছেন ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু। তিনি এ ঘটনায় প্যারাগুয়ে-ইসরাইল কূটনৈতিক সম্পর্কের ওপর প্রভাব ফেলবে বলে সতর্ক করেছেন। এরই মধ্যে প্যারগুয়েতে থাকা ইসরাইলি দূতাবাস বন্ধের নির্দেশ দিয়েছেন নেতানিয়াহু। এদিকে জেরুজালেম থেকে দূতাবাস সরিয়ে আনায় প্যারাগুয়ের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক জোরদার করছে তুরস্ক। প্যারাগুয়েতে দূতাবাস খোলার ঘোষণা দিয়েছে দেশটি। প্যারাগুয়ের পররাষ্ট্রমন্ত্রী লুইস কাস্তিগিলোনি বলেন, তুরস্ক দূতাবাস খোলার মাধ্যমে আমাদের সমর্থন দিল। আর ফিলিস্তিনিরাও এ পদক্ষেপকে স্বাগত জানিয়েছে। রাশিয়ান টাইমস, মিডল ইস্ট মনিটর