আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ১০-০৯-২০১৮ তারিখে পত্রিকা

সাতক্ষীরায় গুলিতে ইউপি চেয়ারম্যান নিহত

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি
| প্রথম পাতা

কালীগঞ্জ উপজেলার কৃষ্ণনগর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান ও জেলা জাতীয় পার্টির যুগ্ম সাংগঠনিক সম্পাদক কেএম 

মোশাররফ হোসেন দুর্বৃত্তদের গুলি ও ছুরিকাঘাতে নিহত হয়েছেন। শনিবার রাত 

১১টার দিকে কৃষ্ণনগর বাজারে দুর্বৃত্তরা তাকে গুলি করলে তিনি ঘটনাস্থলেই লুটিয়ে পড়েন। দ্রুত উদ্ধার করে কালীগঞ্জ হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। তিনি খুলনা বিভাগের মধ্যে জাতীয় পার্টির একমাত্র দলীয় ইউপি চেয়ারম্যান ছিলেন। মোশাররফ হোসেন কৃষ্ণনগর গ্রামের মৃত সৈলুদ্দিন কাগুজির ছেলে। রোববার বিকাল ৪টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত থানায় কেউ মামলা করেননি।

কালীগঞ্জ থানার ওসি হাসান হাফিজুর রহমান প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাতে জানান, মোশাররফ হোসেন রাত ১১টার দিকে স্থানীয় যুবলীগ 

অফিসে বসে ছিলেন। এ সময় পাঁচ থেকে ছয় যুবক মোটরসাইকেলে এসেই বাজারে কয়েকটি ককটেলের বিস্ফোরণ ঘটান। এতে আতঙ্কিত হয়ে লোকজন বাজারের দোকানপাট বন্ধ করার সুযোগে সন্ত্রাসীরা যুবলীগ অফিসে ঢুকে চেয়ারম্যানের গালে পিস্তল ঠেকিয়ে গুলি করেন। এরপর তারা তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে আহত করার পর পালিয়ে যান। কালীগঞ্জ হাসপাতালে নেওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক মহসিন আলী তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
কালীগঞ্জ সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) ইয়াসিন আলী জানান, চেয়ারম্যানের লাশ কালীগঞ্জ হাসপাতালে রয়েছে। হত্যার আলামত হিসেবে কয়েকটি গুলি সেখানে পাওয়া গেছে।
মোশাররফ হোসেন কৃষ্ণনগর ইউপির তিনবারের নির্বাচিত চেয়ারম্যান। হত্যার কারণ এখনও নিশ্চিত করতে পারেনি পুলিশ। এ ঘটনায় এখনও কেউ গ্রেপ্তার হয়নি।
কালীগঞ্জ উপজেলার কৃষ্ণনগর ইউনিয়নের সংরক্ষিত নারী সদস্য শ্যামলী অধিকারী বলেন, মোশাররফ হোসেনের তিন মেয়ে ও স্ত্রী রয়েছেন। এ ব্যাপারে জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি শেখ আজহার হোসেন খুনিদের দ্রুত গ্রেপ্তারের দাবি জানিয়ে বলেন, সাতক্ষীরা জেলার একমাত্র ইউপি চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন, যিনি লাঙ্গল প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে বিপুল ভোটে জয়লাভ করেন। পাশাপাশি তার মৃত্যুতে আমরা গভীরভাবে শোকাহত।
মোশারফ হোসেনকে গুলি করে হত্যার তীব্র নিন্দা ও খুনিদের দ্রুত গ্রেপ্তারের দাবি জানিয়েছেন কালীগঞ্জ উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি মো. মাহবুবর রহমান, সাধারণ সম্পদক মো. আনছার আলী, সাংগঠনিক সম্পদক মো. সাদেকুর রহমান (সাদিক), উপজেলা ছাত্রসমাজের সভাপতি নূর ইসলাম বাবুসহ কালীগঞ্জ উপজেলা জাতীয় পার্টির অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনগুলোর নেতারা।