আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ১১-০৯-২০১৮ তারিখে পত্রিকা

শহিদুলের জামিন আবেদন আজ নিষ্পত্তির নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক
| শেষ পাতা

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের মামলায় গ্রেপ্তার দৃক গ্যালারির 
প্রতিষ্ঠাতা আলোকচিত্রী শহিদুল আলমের জামিনের আবেদন আজ নিষ্পত্তি করতে বিচারিক আদালতের প্রতি 
নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। সোমবার হাইকোর্টের বিচারপতি মো. রেজা-উল হক ও বিচারপতি আবু তাহের মো. সাইফুর রহমানের বেঞ্চ এ আদেশ দেন। শুনানিতে শহিদুল আলমের পক্ষে বক্তব্য উপস্থাপন করেন ব্যারিস্টার সারা হোসেন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।  
এর আগে ৫ সেপ্টেম্বর এক আদেশে আলোকচিত্রী শহিদুল আলমকে কারাবিধি অনুযায়ী প্রথম শ্রেণির ডিভিশন দেওয়ার নির্দেশ দেন হাইকোর্টের বিচারপতি বোরহানউদ্দীন ও বিচারপতি মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমানের বেঞ্চ। তার জামিন চেয়ে ২৮ আগস্ট হাইকোর্টে আবেদন করেন তার আইনজীবীরা। ৪ সেপ্টেম্বর শুনানিতে বিব্রত প্রকাশ করেন হাইকোর্টের বিচারপতি মো. রুহুল কুদ্দুস ও বিচারপতি খন্দকার দিলীরুজ্জামানের বেঞ্চ। পরে প্রধান বিচারপতি বিষয়টি শুনানির জন্য হাইকোর্টের বিচারপতি মো. রেজা-উল হক ও বিচারপতি আবু তাহের মো. সাইফুর রহমানের বেঞ্চ নির্ধারণ করেন। 
তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের মামলায় ৫ আগস্ট শহিদুল আলমকে গ্রেপ্তার করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। ৬ আগস্ট তাকে আদালতে হাজির করা হলে পুলিশের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন ঢাকার অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম মো. আসাদুজ্জামান নূর। এ রিমান্ডের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে ও শহিদুল আলমের সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করার নির্দেশনা চেয়ে সাত আগস্ট হাইকোর্টে রিট করেন তার স্ত্রী রেহনুমা আহমেদ। রিটে বলা হয়, শহিদুল আলমকে জিজ্ঞাসাবাদের নামে রিমান্ডে নিয়ে নির্যাতন করা হচ্ছে। আবেদনের নিষ্পত্তি করেন শহিদুল আলমকে শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করা হয়েছে কি না তা ২০১৩ সালের নির্যাতন এবং হেফাজতে মৃত্যু (নিবারণ) আইনের ২(৬) ধারা অনুসারে পরীক্ষা করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন হাইকোর্টের বিচারপতি সৈয়দ মোহাম্মদ দস্তগীর হোসেন ও বিচারপতি ইকবাল কবিরের বেঞ্চ। এরপর শহিদুল আলমের জামিন চেয়ে ২৮ আগস্ট হাইকোর্টে আবেদন করা হয়।