আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ১১-০৯-২০১৮ তারিখে পত্রিকা

কারণ ‘ফেইসবুক আসক্তি’!

আলোকিত ডেস্ক
| শেষ পাতা

কনের বাড়িতে বিয়ের আয়োজন সব শেষ। অপেক্ষা শুধু বর আসার। তবে বর আসতে দেরি করছেন, কেন দেরি করছেনÑ সে কথা জানতে কনের পরিবার ফোন করেন বরের বাড়িতে।এরপরই আসে অনাকাক্সিক্ষত সিদ্ধান্তের খবর। বরের বাড়ি থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়, এ বিয়ে হবে না। কারণ হিসেবে তারা বলেন, ‘কনের ফেইসবুক, হোয়াটসঅ্যাপে মাত্রাতিরিক্ত আসক্তি; এ কারণে বিয়েতে রাজি নন পাত্র।’ তবে এ দাবি সম্পূর্ণ প্রত্যাখ্যান করেছে কনের পরিবার। তারা জানায়, অতিমাত্রায় যৌতুক চেয়েছিল বরপক্ষ। ভারতের উত্তরপ্রদেশের আমরোহায় বুধবার এ ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম। আমরোহা থানা পুলিশের বরাতে খবরে বলা হয়, কনে ও তার পরিবার বরযাত্রীর জন্য অপেক্ষা করছিল। 
কিন্তু সঠিক সময়ে বরযাত্রী না আসায় কনের বাবা পাত্রের বাবাকে ফোন করেন। তখন পাত্রের বাবা জানিয়ে দেন, তারা বিয়ে বাতিল করে দিয়েছেন। কারণ হিসেবে কনের হোয়াটসঅ্যাপ, ইনস্টাগ্রাম ও ফেইসবুকে অতিরিক্ত ঝোঁক আছে বলে জানান তারা। এ বিষয়ে আমরোহা পুলিশের কাছে এ অভিযোগ করেছে পাত্রপক্ষ। পাত্রপক্ষের দাবি, বিয়ের লগ্নের আগেও শ্বশুরবাড়ির লোকজনের সঙ্গে হোয়াটসঅ্যাপে চ্যাট করছিলেন কনে। তবে পাত্রীপক্ষ জানিয়েছে ভিন্ন কথা। তাদের দাবি, যৌতুকের দাবি না মেটাতে পারার কারণেই বিয়ের দিন বিয়ে ভেঙে দিয়েছে পাত্রপক্ষ। পাত্রীর বাবা উরজ মেহান্দি পাত্রের বাবার বিরুদ্ধে ৬৫ লাখ টাকা যৌতুক চাওয়ার অভিযোগ করেছেন। সূত্র : ইন্টারনেট