আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ১২-০৯-২০১৮ তারিখে পত্রিকা

স্বর্ণের টিফিন বক্সে খাবার খেত চোর!

কলকাতা প্রতিনিধি
| আন্তর্জাতিক

চুরি করা স্বর্ণের টিফিন বক্সে নিয়মিত খাবার খেত দুই চোর। যদিও শেষ পর্যন্ত তাদের এত সুখ সহ্য হলো না। পুলিশের হাতে ধরা পড়েছে তারা। ২ সেপ্টেম্বর হায়দরাবাদের পুরানি হাভেলির সংগ্রহশালা থেকে নিজামদের ব্যবহৃত স্বর্ণের টিফিন বক্স, বহমূল্য রতœখচিত কাপ-প্লেট, স্বর্ণের চামচসহ বেশকিছু মূল্যবান সামগ্রী চুরি হয়। এরপর ঘটনার তদন্তে নামে হায়দরাবাদ পুলিশ। তদন্তে নেমে সিসিটিভির ফুটেজে দেখা যায়, পুরানি হাভেলির সংগ্রহশালার ভেন্টিলেটর ভেঙে দুই চোর ভেতরে প্রবেশ করে। চুরি করার আগে তারা পর্যটক সেজে হাভেলির সংগ্রহশালা রেকিও করে। পরে পুলিশের নিরবচ্ছিন্ন প্রচেষ্টায় মুম্বাইয়ের একটি হোটেলে ধরা পড়ে দুই চোর।

সিসিটিভির ফুটেজে সংগ্রহশালার বাইরে দাঁড় করা মোটরবাইকে করে চুরি করা সামগ্রী নিয়ে দুই চোরকে পালিয়ে যেতে দেখা যায়। যার মধ্যে একজন সে সময় মোবাইলে কথা বলছিল। সে ফোন ট্র্যাক করতে গিয়ে পুলিশ ২২ জনের একটি কমিটি তৈরি করে এবং ৩০০টি টাওয়ারের ডেটা খতিয়ে দেখে। সবশেষে পুলিশ জানতে পারে, চুরি করার পর চোরেরা যে ফোনে কথা বলছিল সে ফোনে আদৌ সিম কার্ড ছিল না। পুলিশের চোখে ধুলো দিতেই ফোনে কথা বলার নাটক সাজায় তারা। এরপর পুলিশ দুই চোরের মোটর বাইকের খোঁজ শুরু করে। বাইক খুঁজতে গিয়ে জানা যায়, চুরি করার পর দুই চোর হায়দরাবাদ থেকে সোজা মুম্বাই পাড়ি দিয়েছে। মুম্বাই গিয়ে দুই চোর একটি নামি হোটেলে ওঠে। সেখানে চুরি করে আনা নিজামের স্বর্ণের টিফিন বক্সে নিয়মিত খাবার খেত তারা। দুই চোরের মধ্যে মূল অভিযুক্তের বিরুদ্ধে পুলিশের খাতায় ২৬টি চুরির মামলা রয়েছে।