আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ১২-০৯-২০১৮ তারিখে পত্রিকা

একই দিনে সাবেরী ও জিতুর জন্মদিন

বিনোদন প্রতিবেদক
| বিনোদন

নন্দিত নাট্যনির্মাতা বদরুল আনাম সৌদের নাটকে সহশিল্পী হিসেবে কাজ করেছেন সাবেরী আলম ও জিতু আহসান। সৌদের নির্দেশনায় তারা প্রথম একসঙ্গে অভিনয় করেন ‘সীমান্ত’ নাটকে। এর পর তারা একই পরিচালকের নির্দেশনায় ‘গহীনে’, ‘পিঞ্জর’, ‘এলেবেলে’সহ আরও বেশ কিছু নাটকে অভিনয় করেন। আজ দর্শকপ্রিয় এ দুই অভিনয়শিল্পীর জন্মদিন। সাবেরী আলম ও জিতু আহসান বেশ আগে থেকেই অবগত যে, তাদের দুজনের জন্মদিন একই দিনে। জন্মদিনে একে অপরকে শুভেচ্ছাও জানান। তবে এবারের জন্মদিনে দুজনের কেউই বিশেষ কোনো আয়োজন করছেন না। যেহেতু ২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বর সাবেরী আলমের ছোট ভাই নির্মাতা আহীর আলম মারা যান, সেই থেকে নিজের জন্মদিনে সাবেরী নিজে তেমন কিছুই করেন না। সাবেরী আলমের স্বামী আবু নাদিম মোতাহের যতদিন বেঁচে ছিলেন, ততদিন সাবেরীর জন্মদিনে কিছু না কিছু করতেন। কিন্তু এখন সাবেরী তার জন্মদিনের আগের দিন বনানী কবরস্থানে যান আহীরের কবরের কাছে। তবে সাবেরী আলম জানান, তার বড় বোন ইমন তার বাসায় আসবেন আজ এবং দুই বোন একসঙ্গে খাওয়া-দাওয়া করবেন। সঙ্গে থাকবে সাবেরীর দুই সন্তান অনন্য ও অনন্ত। নিজের জন্মদিন প্রসঙ্গে সাবেরী আলম বলেন, ‘আহীর মারা যাওয়ার পর থেকে জন্মদিনে আমার তেমন কিছুই করা হয়ে ওঠে না। নাদিম বেঁচে থাকলে হয়তো অনেক কিছুই করা হতো। কিন্তু নাদিমও নেই। তাই জন্মদিনকে ঘিরে তেমন কোনো পরিকল্পনা করা হয় না। সবার কাছে দোয়া চাই আল্লাহ যেন আমাকে সুস্থ রাখেন, অভিনয়টা যেন ভালোভাবে করে যেতে পারি। আর অবশ্যই জিতুকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা।’ যথারীতি জিতু আহসানেরও আজ জন্মদিন। সারাদিন প্রাসঙ্গিক নানা কাজের মধ্যদিয়েই কেটে যাবে তার। সন্ধ্যার পর তিনি তার স্ত্রী তাসকিনা আলী, দুই সন্তান আদিবা ও আবরারকে সঙ্গে নিয়ে বাইরে বের হবেন রাতের খাবার একসঙ্গে খাওয়ার জন্য। জিতু আহসান বলেন, ‘এবারের জন্মদিনে কিছু ব্যক্তিগত কাজে ভীষণ ব্যস্ত থাকব। তাই জন্মদিনে আয়োজন করে কিছু করার কোনো পরিকল্পনা নেই। সবার কাছে জন্মদিনে দোয়া চাই যেন সবাইকে নিয়ে ভালো থাকি, সুস্থ থাকি।’ সাবেরী আলম অভিনীত ধারাবাহিক ‘তুমি আছো তাই’, ‘প্রেম নগর’, ‘বহে সমান্তরাল’, ‘নিউইয়র্ক থেকে বলছি’, ‘নীল নির্বাসন’, ‘মেঘের ওপারে মেঘ’ বিভিন্ন চ্যানেলে নিয়মিত প্রচার হচ্ছে। মুক্তির অপেক্ষায় আছে সাবেরী অভিনীত মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ পরিচালিত ‘যদি একদিন’ চলচ্চিত্র। এদিকে ছোটবেলায় জিতু প্রথম আবদুল লতিফ বাচ্চুর নির্দেশনায় ‘লাল বেলুন’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। বড় হয়ে তার অভিনীত একমাত্র চলচ্চিত্র বদরুল আনাম সৌদের ‘গহীন বালুচর’।