আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ১২-০৯-২০১৮ তারিখে পত্রিকা

চিকিৎসার নামে প্রতারণা

দায়ীদের শাস্তি দিন

| সম্পাদকীয়

একটি রাষ্ট্রের নাগরিকদের পাঁচটি মৌলিক চাহিদার মধ্যে চিকিৎসা অন্যতম। একটু সুস্থভাবে বেঁচে থাকার জন্যই মানুষের চিকিৎসার প্রয়োজন হয়। এ জন্য মানুষ ডাক্তার ও হাসপাতালের শরণাপন্ন হন। কিন্তু বাংলাদেশে সাম্প্রতিক সময়ে ডাক্তারদের মধ্যে একটি অংশ যেন মানবসেবা ও মানবিকতা ভুলে গিয়ে শুধু অর্থ আদায়কারীর ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছেন। চিকিৎসার নামে করছেন প্রতারণা। ফলে এ পেশার সুনাম কিছু প্রতারক চক্রের হাতে হয়ে গেছে জিম্মি। আলোকিত বাংলাদেশে প্রকাশ, হবিগঞ্জের নবীগঞ্জের আউশকান্দি বাজারের অরবিট প্রাইভেট হসপিটালের চিকিৎসক ডা. এএইচএম খায়রুল বাশার সুস্থ হওয়ার পরও জিবা নামে এক শিশুকে অর্থের লোভে ‘উন্নত’ হসপিটালের আরেক চিকিৎসকের কাছে পাঠিয়েছিলেন। দুই চিকিৎসকের মোবাইল ফোনে কথোপকথনের কল রেকর্ডে বিষয়টি ধরা পড়েছে। এদিকে ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে একটি চক্র মরিয়া হয়ে উঠেছে বলেও অভিযোগ রয়েছে। অপরাধ প্রমাণিত হলে এই দুই চিকিৎসকের দৃষ্টান্তমূলক ও কঠোর শাস্তি হওয়া প্রয়োজন, যাতে এমন কর্মকা- করতে আর কেউ সাহস না পান।
দুই চিকিৎসকের কর্মকা- থেকে এটা স্পষ্ট যে, দেশে বর্তমানে মানবিক চেতনার বদলে মুনাফাকে প্রাধান্য দিয়ে চিকিৎসার নামে অনেক জায়গায়ই চলছে নিষ্ঠুর প্রতারণা। পত্রপত্রিকায় রোগীর সঙ্গে বিভিন্নভাবে প্রতারণার সংবাদ আগেও ছাপা হয়েছে, অবস্থার কোনো পরিবর্তন হয়নি। রোগীরা আজকাল তাই সাধারণ রোগের চিকিৎসায়ও দেশের কোনো হাসপাতালে ভর্তি হতে ভয় পান। দেশে প্রায় সবক্ষেত্রে চিকিৎসার সুযোগ সৃষ্টি হলেও চিকিৎসা সংশ্লিষ্টদের সততার অভাব অসংখ্য মানুষকে বিদেশমুখী হতে বাধ্য করছে। শত শত কোটি টাকার বৈদেশিক মুদ্রা বিদেশে চলে যাচ্ছে। চিকিৎসা ক্ষেত্রে দেশে যে নৈরাজ্য চলছে তার অবসানে সরকারকে অবশ্যই কঠোর হতে হবে। চিকিৎসা ক্ষেত্রে মানবিক চেতনা প্রতিস্থাপনে মুনাফাখোর মনোবৃত্তিকে সামাল দিতে এখনই পদক্ষেপ নিতে হবে।
চিকিৎসা দুনিয়াজুড়েই মানবিক পেশা হিসেবে স্বীকৃত। বিভিন্ন কল্যাণ রাষ্ট্রে এটিকে মৌলিক অধিকার হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছে। বাংলাদেশেও চিকিৎসাকে মৌলিক অধিকার হিসেবেই স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছে। তাই মুনাফা বা অন্য কোনো অর্জনের চেয়ে সেবাই চিকিৎসাক্ষেত্রে প্রাধান্য পাওয়া উচিত। কিন্তু কার্যত দেখা যাচ্ছে, কিছু অসাধু ডাক্তারের কারণে রোগীরা সেবাপ্রাপ্তি থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন, বিভ্রান্ত এবং শারীরিক, মানসিক ও আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন। স্বাস্থ্য খাতে সরকার প্রতি বছর শত শত কোটি টাকা ব্যয় করলেও তার সুফল পৌঁছাচ্ছে না সাধারণ মানুষের কাছে। চিকিৎসার নামে যারা প্রতারণা করছেন তাদের কঠোর শাস্তি দিন। হ