আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ১২-০৯-২০১৮ তারিখে পত্রিকা

আরও চার স্থানে চারজনের মৃত্যু

চকরিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৭

আলোকিত ডেস্ক
| শেষ পাতা

পাঁচ জেলায় সড়ক দুর্ঘটনায় ১১ জন মারা গেছেন। মঙ্গলবার এসব ঘটনার মধ্যে চকরিয়ায় বাস ও লেগুনা মুখোমুখি সংঘর্ষে সাতজন, ঠাকুরগাঁওয়ে পিকআপ ও দুই মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে আরোহী, ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় রাস্তা পারাপারের সময় মোটরসাইকেলের ধাক্কায় শিশু, রংপুরে ট্রলির ধাক্কায় যুবক এবং গোপালগঞ্জে মাইক্রোবাস চাপায় তৃতীয় শ্রেণির এক ছাত্র মারা গেছে। ব্যুরো ও প্রতিনিধিদের খবরÑ 

চকরিয়া (কক্সবাজার) : কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার বরইতলী নতুন রাস্তার মাথা এলাকায় স্টার লাইন পরিবহনের একটি বাসের সঙ্গে লেগুনার মুখোমুখি সংঘর্ষে তিন নারীসহ সাতজন যাত্রী মারা গেছেন। এ সময় আহত হয়েছেন অন্তত ১৫ জন যাত্রী। পুলিশ জানায়, কক্সবাজারমুখী স্টার লাইন পরিবহনের একটি বাস ওই এলাকার ফিলিং স্টেশন সংলগ্ন এলাকায় পৌঁছলে বিপরীত দিক থেকে আসা চট্টগ্রাম অভিমুখী লেগুনার সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। ঘটনাস্থলে লেগুনার এক নারী যাত্রী মারা যান। চকরিয়া ফায়ার সার্ভিস, পুলিশ ও স্থানীয়দের সহায়তায় আহতদের হাসপাতালে নিলে প্রাইভেট ইউনিক হাসপাতালে একজন, উপজেলা কমপ্লেক্সে পাঁচজন এবং চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে একসহ সাতজন মারা যান। নিহতরা হলেন লেগুনার চালক চট্টগ্রামের লোহাগাড়ার স্টেশন এলাকার আহমদ হোসেনের ছেলে খাইর আহমদ, আধুনগর ইউনিয়নের আবুল কাসেমের স্ত্রী জাইতুন আক্তার, মোস্তাক আহমদের স্ত্রী রোকেয়া বেগম, চুনতি হিন্দুপাড়া এলাকার যতীন্দ্র সিকদারের মেয়ে বাসন্তী সিকদার, চকরিয়ার বরইতলী ইউনিয়নের উপরপাড়া গ্রামের মনজুর আলমের ছেলে শফিকুল কাদের তুষার, হারবাং পাহাড়তলী গ্রামের সাইফুল আলমের ছেলে মো. আবুল কাসেম, উত্তর হারবাং এলাকার মনছুর আলমের ছেলে জহির আহমদ।
ঠাকুরগাঁও : ঠাকুরগাঁওয়ের তেলিপাড়ায় পিকআপ ও দুই মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে আরোহী মোজাফফর হোসেন মারা গেছেন। আহত হয়েছেন দুইজন। মোফাজ্জল কাজী পোলট্রি ফার্মের গাড়িচালক। আহত দুই মোটরসাইকেল আরোহী শিরিন আক্তার ও ফজলুল করিমকে আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। 
ব্রাহ্মণবাড়িয়া : আখাউড়ার মনিয়ন্দে রাস্তা পারাপারের সময় মোটরসাইকেলের ধাক্কায় সৌরভ নামে এক শিশু মারা গেছে। সে ময়মনসিংহের গৌরীপুর গ্রামের রুবেল মিয়ার ছেলে। রুবেল জানান, সৌরভ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলার মনিয়ন্দ গ্রামে নানার বাড়িতে এসেছিল। রাতে সড়ক পারাপারের সময় মোটরসাইকেল ধাক্কা দিলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।
রংপুর : নগরীর মাহিগঞ্জ তালতলা এলাকায় ট্রলির ধাক্কায় মোবারক নামে এক যুবক মারা গেছেন। সদর থানার ওসি মোক্তারুল আলম জানান, পীরগাছা থেকে ওই ট্রলি রংপুর আসার সময় তালতলা এলাকায় মোবারককে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। 
গোপালগঞ্জ : মুকসুদপুরে মাইক্রোবাসচাপায় কিঞ্জর রায় নামে এক শিক্ষার্থী মারা গেছে। সে পিযুষ রায়ের ছেলে ও মুকসুদপুরের ১৭৭নং বিকে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্র। মুকসুদপুর থানার ওসি মোস্তফা কামাল পাশা জানান, বাড়ির পাশে সড়কের দক্ষিণপাশ থেকে উত্তরপাশে দোকানে যাওয়ার জন্য রাস্তা পার হচ্ছিল কিঞ্জর। এ সময় ঢাকাগামী দ্রুতগতির একটি মাইক্রোবাস শিশুটিকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই সে মারা যায়।