আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ১৩-০৯-২০১৮ তারিখে পত্রিকা

চলে এসেছেন বিশ্বকাপার

স্পোর্টস রিপোর্টার
| খেলা

ঢাকার মাঠে শেষ কবে বিশ্বকাপ খেলা ফুটবলার খেলেছেনÑ হঠাৎ শুনলে চমকে ওঠার কথা! কেননা, বাংলাদেশের ক্লাব কর্তারা ২০০ ডলারের শরীর নির্ভর আফ্রিকান ফুটবলারে এতটা মগ্ন, যে শৈল্পিক ফুটবল ভুলে গেছে। অনেক দিন পর বাংলাদেশে আসছেন বিশ্বকাপ খেলা ফুটবলার, ড্যানিয়েল কলিন্দ্রেস, কোস্টারিকা দলের স্ট্রাইকার; তার সঙ্গে ২০১৮-১৯ প্রিমিয়ার লিগের নবাগত বসুন্ধরা কিংসের চুক্তিও হয়ে গেছে, ক্লাবে যোগ দিতে আজ ভোর রাতে ঢাকা চলে আসার কথা। সোমবার জাপানের বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচ খেলেছেন তিনি, সেখান থেকেই এসেছেন। ২১ সেপ্টেম্বর নীলফামারীতে সফরকারী মালদ্বীপের নিউ রেডিয়েন্টের বিপক্ষে বসুন্ধরার জার্সিতে অভিষেক হতে পারে। ড্যানিয়েলের আসার কথা গোপন রাখার চেষ্টা করছেন বসুন্ধরার কর্মকর্তারা; গণমাধ্যমের সামনে ঘটা করে পরিচয় করিয়ে দিতে চায় তারা।

কলিন্দ্রেস দেশের জার্সিতে খেলেছেন ১৫টি ম্যাচ। সদ্য রাশিয়া বিশ্বকাপ খেলেছেন, সার্বিয়া ও সুইজারল্যান্ড ম্যাচে মোট ৯৮ মিনিট মাঠে ছিলেন। সুইসদের বিপক্ষে ছিলেন একাদশে, খেলেন ৮১ মিনিট। দেপোর্তিভো সাপ্রিসার একাডেমিতে বেড়ে ওঠা ৩৩ বছরোর্ধ্ব স্ট্রাইকারের পেশাদার ফুটবলে অভিষেক এ ক্লাবে। সাপ্রিসার জার্সিতে পাঁচটি কোস্টারিকান লিগ শিরোপা জেতা কলিন্দ্রেস শেষ ম্যাচ খেলেছেন ২ সেপ্টেম্বর। রিয়াল মাদ্রিদ গোলরক্ষক কেইলর নাভাসের সঙ্গে জাতীয় দলে খেলেছেন কলিন্দ্রেস, গোল করা না, করানো তার কাজ। রাশিয়ায় কলিন্দ্রেসের সতীর্থ জনি আকাস্তা এরই মধ্যে যোগ দিয়েছেন কলকাতা ইস্টবেঙ্গল ক্লাবে।
শুধু কলিন্দ্রেসই না, চ্যাম্পিয়ন্স লিগ খেলা উসমান জ্যালোকে দলে ভেড়ানোর গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে। ২৯ বছরোর্ধ্ব গাম্বিয়ান ফরোয়ার্ড জাতীয় দলের জার্সিতে ১৮ ম্যাচে করেছেন ৬ গোল; দেশের অনূর্ধ্ব ২০ দলের হয়ে সাত ম্যাচে করেছেন ৫ গোল। ইউরোপা লিগে ৭ গোল ও ২০১৫-১৬ চ্যাম্পিয়ন্স লিগে চার ম্যাচে আছে ২ গোল। সর্বশেষ ফিনল্যান্ডের এইচজেকে হেলসিংকির হয়ে জিতেছেন লিগ শিরোপা, ফিনিশ কাপ ও ফিনিশ চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি।
তিন বছর আগে ঢাকা মাতিয়ে যাওয়া হাইতির সনি নর্দেকে ফেরানোর গুঞ্জন ছিল বাজারে, সঙ্গে দুই হাইতিয়ান ও ইস্টবেঙ্গল কোচ খালিদ জামিল। স্প্যানিশ কোচ অস্কার ব্রুজনকে দায়িত্ব দেওয়ার পর পাল্টে গেছে সব।
দেশে পেশাদার ফুটবল যুগে আবির্ভাবে ২০১০-১১ মৌসুমে তারকাখচিত দল গড়েছিল শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব; লিগ শিরোপা জিতেছিল, রানার্সআপ হয় ফেডারেশন কাপ; তখন থেকে তারা জায়ান্ট। গেল বছর হাকডাক দিয়ে ঘর গোছালেও লিগে শেষ পর্যন্ত চতুর্থ হয় চ্যাম্পিয়নশিপে অপরাজিত রানার্সআপ হওয়া সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব। ২০১৮-১৯ লিগে নবাগত বসুন্ধরা কিংস; অন্যরা আড়মোড়া ভাঙছিল, ততদিনে ঘর গোছানো শেষ তাদের! বড় বাজেটে দল গড়েছে, রেকর্ড ৬৫ লাখ টাকায় আবাহনী থেকে নিয়েছে মিডফিল্ডার ইমন মাহমুদকে। সাইফ থেকে মতিন মিয়া, হেমন্ত ভিনসেন্ট ও মো. ইব্রাহিম, মোহামেডানের রেজাউল করিম, চট্টগ্রাম আবাহনীর সবুজ, নুরুল নাইম ফয়সাল, মাসুক মিয়া জনি ও মান্নাফ রাব্বী, আরামবাগের সুফিল, শেখ রাসেলের মোস্তাক, আলমগীর রানা ও সবুজ দাস, ব্রাদার্সের সালাহউদ্দিন ও বিশাল দাস, শেখ জামালের দিদারুল আলম, রিদওয়ান রাকিন ও মিতুল হাসান, বিজেএমসির শোয়েব ও কৃষ্ণপদকে; জাতীয় অনূর্ধ্ব-১৯ দলের সোহানকে নিয়েছে বসুন্ধরা।