আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ১৩-০৯-২০১৮ তারিখে পত্রিকা

ওআইসিকে রোহিঙ্গারা

নাগরিকত্ব নিয়ে তারা মিয়ানমার ফিরতে চান

কক্সবাজারে ওআইসি প্রতিনিধি দল

| প্রথম পাতা

কক্সবাজারের উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করেছে ওআইসির ২০ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল। বুধবার দুপুরে তারা এ ক্যাম্প পরিদর্শন করেন। এ সময় রোহিঙ্গারা তাদের বলেন, তারা মিয়ানমারে ফিরতে আগ্রহী। তবে তাদের বাপ-দাদার আমলের পুরানো বসতবাড়ি ফেরত এবং মর্যাদার সঙ্গে নাগরিকত্ব দিতে হবে।

জানা গেছে, সকালে প্রতিনিধি দলকে কক্সবাজার বিমানবন্দরে ফুল দিয়ে বরণ করেন সেখানকার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামাল হোসেন। সঙ্গে ছিলেন অতিরিক্ত জেলা 

প্রশাসক সরওয়ার কামাল, ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার আবুল কালাম। বেলা ১১টার দিকে প্রথমে প্রতিনিধি দলের সদস্যরা ঘুমধুম ট্রানজিট ক্যাম্পে যান। এ সময় নতুন করে আসা ৫০ জন রোহিঙ্গা নারী-পুরুষের সঙ্গে কথা বলেন। ঘুমধুম থেকে পরে উখিয়ার কুতুপালং নিবন্ধিত রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ইউএনএইচসিআর ট্রানজিট সেন্টারে যান এবং সেখানেও নির্যাতিত কিছুসংখ্যক রোহিঙ্গার সঙ্গে কথা বলেন। এরপর দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে কুতুপালং লম্বাশিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ই-ব্লকে নারীবান্ধব কেন্দ্রে নির্যাতিত রোহিঙ্গা নারীদের সঙ্গে কথা বলেন। এ সময় রোহিঙ্গারা বলেন, তারা মিয়ানমারে ফিরতে আগ্রহী, তবে তাদের বাপ-দাদার আমলের পুরানো বসতবাড়ি ফেরত এবং মর্যাদার সঙ্গে নাগরিকত্ব দিতে হবে।
প্রতিনিধি দলের সদস্যরা হলেনÑ ওআইসির সেক্রেটারি জেনারেল মোহাম্মদ কুরাইশি নিয়াশ, ডেপুটি সেক্রেটারি জেনারেল আলী আজগর মোহাম্মদী সিজানি, ডাইরেক্টর অব কনফারেন্স জাহিদ হাসান কুরশি, ইরানের সংসদ সদস্য সৈয়দ হিমায়েত মিরজাদি, মোহাম্মদ হোসাইন কুর্ডলু, তুরস্কের হেড অব ডেলিগেশন ওরহান অ্যাটালাই, মমতাজ জারনি, মালেশিয়ার ডেপুটি স্পিকার রশিদ বিন হাসনুন, মহসীন বিন আবদুল মালেক, আলজেরিয়ার সংসদ সদস্য ইউসেফ এডজিসা, সুদানের ওমর ইবনে দুউদ, মাহামুদু ডিজুগা ডিজুদ্দি, ইসাখা ইসা ইউছুপ, আল হাসান মোহাম্মদ, অসীম উমর আহমেদ আদনান, মোক্তার আহমদ, মাহজুমা হাসান মুসা, আবদেল রহমান হোসাইন, মরক্কোর মোহাম্মদ ওজ্জিন, বাংলাদেশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব স্বর্ণালী ছন্দাসহ বিভিন্ন সংস্থার প্রতিনিধিরা। বিকাল ৩টায় কক্সবাজারে শরণার্থী, ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার কার্যালয়ে কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকের পর তারা ঢাকার উদ্দেশে রওনা হন।