আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ১৫-০৯-২০১৮ তারিখে পত্রিকা

যুক্তরাষ্ট্রে হারিকেন ফ্লোরেন্সের আঘাত

আলোকিত ডেস্ক
| আন্তর্জাতিক

যুক্তরাষ্ট্রের উপকূলীয় একটি এলাকা থেকে বাসিন্দাদের সরিয়ে নিচ্ছেন উদ্ধার কর্মীরা ষ ওয়েবসাইট

যুক্তরাষ্ট্রের পূর্ব উপকূলে আঘাত হানতে শুরু করেছে হারিকেন ফ্লোরেন্স। আবহাওয়া বিভাগ হারিকেনটির মাত্রা ১-এ নামিয়ে আনলেও এটি উত্তর ও দক্ষিণ ক্যারোলিনা এবং ভার্জিনিয়াকে লন্ডভন্ড করে দিতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। ফ্লোরেন্সের তা-বে ব্যাপক প্রাণহানি ঘটতে পারে এবং হারিকেনের প্রভাবে বড় ধরনের বন্যা হতে পারে বলে মার্কিন কর্মকর্তারা সতর্ক করেছেন। আবহাওয়াবিদরা সতর্ক করে বলছেন, নদীর পানি ১৩ ফুট পর্যন্ত বৃদ্ধি পেতে পারে। এরই মধ্যে নদীর পানি উল্টো দিকে প্রবাহিত হচ্ছে। 

উপকূলীয় উত্তর এবং দক্ষিণ ক্যারোলিনা অঙ্গরাজ্য দুটির ১৭ লাখ মানুষকে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। জলোচ্ছ্বাস আর বৃষ্টির ফলে নিউ বার্ন নামে একটি উপকূলীয়  শহরের কিছু অংশ এরই মধ্যে ৯ ফুট পানির নিচে চলে গেছে। কমপক্ষে দুই লাখ লোকের বাড়িতে বিদ্যুৎ নেই। ঘণ্টায় ১৫০ কিলোমিটার গতিবেগের  হারিকেনে  অনেক মানুষের মৃত্যুর আশঙ্কা করা হচ্ছে। 
হারিকেন ফ্লোরেন্সের প্রভাবে যুক্তরাষ্ট্রের পূর্ব উপকূলের অনেক এলাকায় দমকা বাতাস ও বৃষ্টির পরিমাণ বাড়ছে। উত্তর ও দক্ষিণ ক্যারোলিনায়  উপকূলে আছড়ে পড়ার পর  হারিকেনটি ভেতরের দিকে অগ্রসর হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। হারিকেন ফ্লোরেন্স মোকাবিলায় যুক্তরাষ্ট্রের অন্যান্য এলাকা থেকে জরুরি বিভাগের কর্মীদের পূর্ব উপকূলের রাজ্যগুলোতে নিয়ে আসা হয়েছে। জলাবদ্ধ নাগরিকদের উদ্ধারে প্রস্তুত রয়েছে কোস্টগার্ডের শ্যালো-ওয়াটার রেসপন্স বোট। বিবিসি, ডেইলি মেইল, আলজাজিরা