আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ১৬-০৯-২০১৮ তারিখে পত্রিকা

ইসলামিক ডেমোক্র্যাটিক অ্যালায়েন্সের আত্মপ্রকাশ

নিজস্ব প্রতিবেদক
| শেষ পাতা

ইসলামী ও সমমনা ১৫ রাজনৈতিক দল নিয়ে গঠিত হয়েছে নতুন জোট ‘ইসলামিক ডেমোক্র্যাটিক অ্যালায়েন্স (আইডিএ)। এ জোটের নেতৃত্বে রয়েছেন বাংলাদেশ ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান মিছবাহুর রহমান চৌধুরী ও তরিকত ফেডারেশনের সাবেক মহাসচিব এমএ আউয়াল এমপি।

শনিবার দুপুরে রাজধানীর গুলিস্তানে হোটেল ইম্পেরিয়ালে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনের মধ্য দিয়ে এ জোট আত্মপ্রকাশ করে।

লিখিত বক্তব্যে আইডিএ-এর মুখপাত্র এমএ আউয়াল বলেন, নতুন এ জোটের উদ্দেশ্য, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন মহাজোটকে শক্তিশালী করা, নির্বাচন কেন্দ্র করে তার পক্ষে ব্যাপক জনমত সৃষ্টি, ১/১১-এর কুশীলব

ও ইসলামের বিকৃতিকারী জামায়াতিদের ও বিদেশি হস্তক্ষেপের বিরুদ্ধে জনমত সৃষ্টি এবং দুর্নীতিবাজ রাঘববোয়াল ও সরকারি কর্মকর্তাদের প্রমাণসহ তালিকা প্রস্তুত করে জনসম্মুখে প্রকাশ করা।

তিনি আরও বলেন, এ জোট প্রতিষ্ঠার লক্ষ্য সুদূরপ্রসারী। অক্টোবরের প্রথম সপ্তাহে ঢাকায় গণসমাবেশ করে জোটের বিস্তারিত কর্মসূচি দেশবাসীকে জানাব। আশা করছি, এর আগেই দেশপ্রেমিক দল ও বিখ্যাত আলেম এবং ইসলামী চিন্তাবিদরা এ জোটে যোগদান করবেন।

সংবাদ সম্মেলনে আরও জানানো হয়, নতুন জোটের চেয়ারম্যান হলেন বাংলাদেশ ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান আলহাজ মিছবাহুর রহমান চৌধুরী, কো-চেয়ারম্যান ও মুখপাত্র বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশনের সাবেক মহাসচিব এমএ আউয়াল এমপি ও মহাসচিব হয়েছেন গণতান্ত্রিক ইসলামিক মুভমেন্টের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট নুরুল ইসলাম খান।

ইসলামিক ডেমোক্র্যাটিক অ্যালায়েন্সের অন্তর্ভুক্ত ১৫ দলের মধ্যে রয়েছে মিছবাহুর রহমান চৌধুরীর বাংলাদেশ ইসলামী ঐক্যজোট, ব্যক্তি হিসেবে বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশনের সাবেক মহাসচিব এমএ আউয়াল এমপি, অ্যাডভোকেট মো. নুরুল ইসলাম খানের গণতান্ত্রিক ইসলামিক মুভমেন্ট, এমএ রশিদ প্রধানের বাংলাদেশ ইসলামিক পার্টি, হাসরত খান ভাষানীর বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-ন্যাপ ভাষানী গ্রুপ, রুমা আলীর বাংলাদেশ ডেমোক্র্যাটিক ফ্রন্ট।

এছাড়া মাওলানা শাহ মোস্তাকিম বিল্লাহ ছিদ্দিকীর বাংলাদেশ জমিয়তে দারুসসুন্নাহ, মাওলানা হারিছুল হকের বাংলাদেশ ইসলামী ডেমোক্র্যাটিক ফোরাম, হাকিম গোলাম মোস্তফার বাংলাদেশ গণ কাফেলা, মুফতি ফখরুল ইসলামের বাংলাদেশ জনসেবা আন্দোলন, কাজী মাসুদ আহমদের বাংলাদেশ পিপলস ডেমোক্র্যাটিক পার্টি, রেজাউল করিম চৌধুরীর বাংলাদেশ ইসলামী পেশাজীবী পরিষদ, মুফতি সৈয়দ মাহাদী হাসান বুলবুলের ইসলামী ইউনিয়ন বাংলাদেশ, খাজা মহিবুল্লাহ শান্তিপুরীর বাংলাদেশ মানবাধিকার আন্দোলন ও আবদুল্লাহ জিয়ার ন্যাশনাল লেবার পার্টি।

জোটে অন্তর্ভুক্ত দলগুলোর নিবন্ধন প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মিছবাহুর রহমান চৌধুরী জানান, জোটের অন্তর্ভুক্ত দলগুলো এরই মধ্যে নিবন্ধনের জন্য আবেদন করেছে। সব শর্ত পূরণ করা সত্ত্বেও নিবন্ধন দেওয়া হচ্ছে না। নির্বাচনের আগে আশা করি নিবন্ধন পাব। এছাড়া আগামী নির্বাচনে আসন ভাগাভাগি বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এটি ভবিষ্যৎ সময়ই বলে দেবে।