আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ১৬-০৯-২০১৮ তারিখে পত্রিকা

আজ রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের কার্যক্রম শুরু

গঙ্গাচড়া শেখ হাসিনা সেতু উদ্বোধন আজ

রংপুর ব্যুরো
| শেষ পাতা

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শনিবার ঢাকায় গণভবনে আইডিইবির তিন দিনব্যাপী জাতীয় সম্মেলনের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে ভাষণ দেন - পিআইডি

রংপুরের গঙ্গাচড়ায় তিস্তা নদীর ওপর নবনির্মিত গঙ্গাচড়া শেখ হাসিনা সেতু আজ আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করা হবে। গণভবন থকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সেতু আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ঘোষণা করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মহিপুর-কাকিনা পয়েন্টে এলজিইডির বাস্তবায়নে নবনির্মিত ৮৫০ মিটার দৈর্ঘ্যরে সেতু নির্মাণকালে দ্বিতীয় তিস্তা সড়ক সেতু হিসেবে প্রচার হয়। কিন্তু পরবর্তী সময় রংপুরের মানুষের ভাগ্যের উন্নয়ন ও গঙ্গাচড়া উপজেলাবাসীর দীর্ঘদিনের লালিত স্বপ্নের বাস্তব রূপ পরিগ্রহ করায় প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে তার নামে নতুন এ সেতুর নামকরণের প্রস্তাব করেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মসিউর রহমান রাঙ্গা। 

১৯ জুন রংপুর জেলা প্রশাসকের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় প্রতিমন্ত্রী 

রাঙ্গা গঙ্গাচড়া শেখ হাসিনা সেতু নামকরণের প্রস্তাব করলে উপস্থিত সবাই তা সমর্থন করেন। পরে এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেনের কাছে লিখিত আবেদন জানান প্রতিমন্ত্রী রাঙ্গা। এদিকে নবনির্মিত গঙ্গাচড়া শেখ হাসিনা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান উপভোগে সবধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছেন জেলা প্রশাসন। সেতুর দুই পাশে গঙ্গাচড়া শেখ হাসিনা সেতু উল্লেখ করে ফলক লাগানো হয়েছে। লাল-সাদা রঙের চাকচিক্যে সেতুর ওপর উড়ছে রঙিন পতাকা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানিয়ে সেতুর আশপাশের এলাকাজুড়ে সাঁটানো হয়েছে ব্যানার-ফেস্টুন। সেতুর উত্তর প্রান্তে বিশাল প্যান্ডেলে ভিডিও কনফারেন্সে প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান সফল করতে ব্যাপক প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব জানান, বেলা ১১টা ৩০ মিনিটে গণভবন থেকে সরাসরি ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে মহিপুর-কাকিনার তিস্তা নদীতে নির্মিত গঙ্গাচড়া শেখ হাসিনা সেতুর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। উদ্বোধনী এ আয়োজন সফল করতে সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে।

আরপিএমপি’র কার্যক্রম উদ্বোধন : গণভবন থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের (আরপিএমপি) কার্যক্রম উদ্বোধন করবেন। গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে আরপিএমপি’র আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ঘোষণা করা হবে বেলা সাড়ে ১১টায়। আরপিএমপি কমিশনার মুহাম্মদ আবদুল আলিম জানান, ২৩৯ দশমিক ৭২ বর্গকিলোমিটার এলাকা নিয়ে রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের কর্মকা- শুরু হবে। রয়েছে ছয়টি থানা। ১৬টি ওয়ার্ড নিয়ে গঠন করা হয়েছে কোতোয়ালি থানা। এ থানায় অন্তর্ভুক্ত করা হয় ১৩ নম্বর থেকে ২৮ নম্বর ওয়ার্ড পর্যন্ত। পরশুরাম থানা গঠন করা হয়েছে ৩, ৪, ৫ ও ৬নং ওয়ার্ড নিয়ে। হাজিরহাট থানায় অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে ১, ২, ১০, ১১ ও ১২ নম্বর ওয়ার্ড। হারাগাছ থানার আওতায় নেওয়া হয়েছে ৭, ৮ ও ৯ নম্বর ওয়ার্ডকে। এছাড়াও রয়েছে কাউনিয়া উপজেলার সারাই ইউনিয়ন ও হারাগাছ পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ড। তাজহাট থানার আওতায় রয়েছে ১৫, ২৮নং ওয়ার্ডের কিছু অংশ ২৯, ৩১ ও ৩২নং ওয়ার্ড। মাহিগঞ্জ থানার আওতায় রয়েছে পীরগাছা উপজেলার কল্যাণী ইউনিয়ন ও রংপুর সিটি করপোরেশনের ২৯, ৩০ ও ৩৩ নম্বর ওয়ার্ড। কমিশনার জানান, একজন পুলিশ কমিশনার, একজন অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার, দুইজন উপপুলিশ কমিশনার, একজন অতিরিক্ত উপপুলিশ কমিশনার পাঁচজন সহকারী পুলিশ কমিশনারসহ ৪৭০ পুলিশ সদস্য আরপিএমপিতে যোগদান করেছেন। বিভিন্ন ধরনের যানবাহন রয়েছে ৪৭টি। তিনি আরও জানান, রংপুর নগরীর বুড়িহাট রোডে প্রায় তিন একরের একটি দ্বিতল ভবন ভাড়া নিয়ে আরপিএমপি পুলিশ লাইন্স স্থাপন করা হয়েছে।