আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ১৭-০৯-২০১৮ তারিখে পত্রিকা

হিজড়াদের পুনর্বাসনের চেষ্টা হচ্ছে : মেনন

সংসদ প্রতিবেদক
| নগর মহানগর

সমাজের তৃতীয় লিঙ্গ হিজড়াদের পরিবারে পুনর্বাসনের চেষ্টা করা হচ্ছে জানিয়ে সমাজকল্যাণ মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন বলেছেন, হিজড়াদের পুনর্বাসনের জন্য সরকারের কর্মসূচি আছে। তবে সমাজের বাইরে অন্তর্ভুক্ত না করে পরিবারেই পুনর্বাসনের চেষ্টা করছি। রোববার জাতীয় সংসদ অধিবেশনে প্রশ্নোত্তর পর্বে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। সংরক্ষিত আসনের এমপি আক্তার জাহানের এক সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে তিনি আরও বলেন, সরকার হিজড়াদের তৃতীয় লিঙ্গ হিসেবে ঘোষণা দিয়েছে। হিজড়াদের পুনর্বাসনের জন্য সরকারের কর্মসূচি আছে। আমাদের লক্ষ্য হিজড়াদের সমাজের মধ্যেই অন্তর্ভুক্ত করা। এ কারণে পরিবারে পুনর্বাসনের চেষ্টা। সমাজকল্যাণ বিভাগের কর্মকর্তা এবং এনজিওদের মাধ্যমে সেই কাজগুলো করছি। কয়েক দিনের মধ্যেই এ সংক্রান্ত একটি সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে। সেখানে থেকে যে মতামত উঠে আসবে তার ওপর ভিত্তি করে আমরা পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেব।
সরকারদলীয় এমপি কামাল আহমেদ মজুমদারের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, সরকার সিনিয়র সিটিজেনদের কল্যাণে ২০১৩ সালে জাতীয় প্রবীণ নীতিমালা প্রণয়ন করেছে। সমাজসেবা অধিদপ্তর পরিচালিত সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির আওতায় প্রবীণদের জন্য ১৯৯৮ সাল থেকে ভাতা প্রদান কার্যক্রম চালু করা হয়েছে। এ কার্যক্রমের আওতায় বর্তমানে সারা দেশে সিনিয়র সিটিজেনদের জন্য বয়স্কভাতা, বিধবা ও স্বামী নিগৃহীতা ভাতা ও অসচ্ছল প্রতিবন্ধী ভাতা চালু রয়েছে।
সরকারদলীয় এমপি ফরিদুল হক খানের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন বলেন, বর্তমানে দেশে শনাক্তকৃত প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের মোট সংখ্যা ১৫ লাখ ৮৯ হাজার ৭৯৪ জন। ২০১৫ সালের িি.িফরংমড়া.নফ নামে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের তথ্য সংবলিত একটি পূর্ণাঙ্গ ডাটাবেজ তৈরি করা হয়েছে। বর্তমানে সফটওয়্যারটি আপগ্রেডেশন হচ্ছে।
এমপি মোহাম্মদ আবদুল মুনিম চৌধুরীর প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, সমাজসেবা অধিদপ্তর পরিচালিত সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির আওতায় প্রতিবন্ধীদের জন্য সারা দেশের মতো প্রতিবন্ধী ভাতা এবং শিক্ষা উপবৃত্তি কার্যক্রম চলমান রয়েছে। সারা দেশে ১০ লক্ষাধিক প্রতিবন্ধী মাসিক ৭০০ টাকা হারে ভাতা পাচ্ছে এবং ৯০ হাজার প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীকে উপবৃত্তি প্রদান করা হচ্ছে।