আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ১৭-০৯-২০১৮ তারিখে পত্রিকা

একটি শিশুও যেন অধিকার বঞ্চিত না হয় : চুমকি

নিজস্ব প্রতিবেদক
| নগর মহানগর

মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি বলেছেন, বঙ্গবন্ধু শিশুদের খুব গুরুত্ব দিতেন। তিনিই প্রথম শিশু আইন করেছিলেন। বর্তমান সরকার শিশু উন্নয়নে অনেক বড় প্রকল্প গ্রহণ করেছে। শিগগিরই শিশু একাডেমি আইন সংসদে উত্থাপন করা হবে। প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, শিশুরা বাংলাদেশের বড় সম্পদ। তাদের দেশের সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। একটি আদর্শ ও শিশুবান্ধব পরিবেশ তৈরি করতে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় এবং বাংলাদেশ শিশু একাডেমি নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। একটি শিশুও যেন তার অধিকার থেকে বঞ্চিত না হয় এ বিষয়ে সবাইকে সচেতন হতে হবে। 
তিনি রোববার বিকালে রাজধানীর বাংলাদেশ শিশু একাডেমির মিলনায়তনে ‘৪১তম মৌসুমি প্রতিযোগিতা-২০১৮’-এ বিজয়ী শিশুদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।
বাংলাদেশ শিশু একাডেমির চেয়ারম্যান কথাসাহিত্যিক সেলিনা হোসেনের সভাপতিত্বে এ অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন সংসদ সদস্য কবি কাজী রোজী, মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব নাছিমা বেগম এনডিসি এবং স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ শিশু একাডেমির পরিচালক আনজীর লিটন।
সচিব নাছিমা বেগম এনডিসি বলেন, বিগত দিনগুলোতে বাংলাদেশ শিশু একাডেমির কাজের অনেক গতি এসেছে। শিশুদের বিষয়গুলোকে সর্বাধিক প্রাধান্য দিয়ে আমরা কাজ করে যাচ্ছি।
বাংলাদেশ শিশু একাডেমির আয়োজনে প্রতি বছরের মতো এবারও শিশুদের প্রতিভা অন্বেষণে দলগত পরিবেশনার মধ্য দিয়ে ৪১তম মৌসুমি প্রতিযোগিতায় জাতীয় পর্যায়ের চূড়ান্ত দলগত প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়। দলগত জ্ঞান-জিজ্ঞাসা বিষয়ে ময়মনসিংহ বিভাগের ময়মনসিংহ জেলার শিশুরা, দলীয় নৃত্য (আঞ্চলিক) বিষয়ে রংপুর বিভাগের রংপুর জেলার শিশুরা, উপস্থিত বিতর্ক বিষয়ে রাজশাহী বিভাগের বগুড়া জেলার শিশুরা, দেয়ালিকা বিষয়ে খুলনা বিভাগের যশোর জেলার শিশুরা এবং সমবেত দেশাত্মবোধক জারিগান বিষয়ে ঢাকা বিভাগের কিশোরগঞ্জ জেলার শিশুরা দেশসেরার পুরস্কার লাভ করে। 
এর আগে সারা দেশের আটটি বিভাগের শিশুরা প্রথমে উপজেলা পর্যায়ে প্রতিযোগিতা করে। এরপর জেলা পর্যায়ে এবং বিভাগীয় পর্যায়ে অংশগ্রহণ করে। প্রতিটি পর্যায়ের প্রথমস্থান অধিকারী দল পরবর্তী পর্যায়ে অংশগ্রহণের সুযোগ লাভ করেছে। এবারের প্রতিযোগিতা পাঁচটি বিষয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে- এর মধ্যে রয়েছে ক. জ্ঞান-জিজ্ঞাসা, খ. দলীয় নৃত্য (আঞ্চলিক), গ. উপস্থিত  বিতর্ক, ঘ. দেয়ালিকা. ঙ. সমবেত দেশাত্মবোধক জারিগান। পরে প্রতিমন্ত্রী শিশুদের মধ্যে পুরস্কার তুলে দেন।