আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ২০-০৯-২০১৮ তারিখে পত্রিকা

মন্ত্রিসভায় অধ্যাদেশ অনুমোদন

ভারতে তিন তালাক শাস্তিযোগ্য অপরাধ

কলকাতা প্রতিনিধি
| আন্তর্জাতিক

ভারতে তিন তালাক শাস্তিযোগ্য অপরাধ। বুধবার ভারতের কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা এমন অধ্যাদেশে সায় দিয়েছে। ভারতের কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ এ তথ্য জানান। এ অধ্যাদেশ জারির ফলে তিনবার তালাক শব্দটি উচ্চারণ করে বিয়েবিচ্ছেদের চেষ্টা করা হলে স্বামীর তিন বছর পর্যন্ত কারাবাসের সাজা ও জরিমানা হতে পারে। এছাড়া স্ত্রী খোরপোশের আবেদনও করতে পারবেন।

তাৎক্ষণিক তিন তালাককে শাস্তিযোগ্য অপরাধ হিসেবে বর্ণিত করে গেল শীতকালীন অধিবেশনেই বিল পাস করেছিল ভারতের লোকসভা। কিন্তু রাজ্যসভায় বিলটি আটকে যাওয়ায় সেটি আর আইনে পরিণত হতে পারেনি। রাজ্যসভায় বিলটির ফৌজদারি অপরাধ নিয়ে আপত্তি জানায় বিরোধীরা। উল্লেখ্য, ২০১৭ সালের আগস্টে তাৎক্ষণিক তিন তালাককে বেআইনি ও অসাংবিধানিক হিসেবে রায় দিয়েছিলেন সুপ্রিমকোর্টের সাংবিধানিক বেঞ্চ। কেন্দ্রীয় সরকারকে এ বিষয়ে আইন প্রণয়নের নির্দেশও সেই সময় দিয়েছিলেন ভারতের শীর্ষ আদালত। কিন্তু বিষয়টি নিয়ে বিরোধিতা বাড়তে থাকায় কেন্দ্রের তরফে ভারতের বিভিন্ন রাজ্যের মতামত চাওয়া হয়েছিল। বিলে বলা হয়, তাৎক্ষণিক তিন তালাক শাস্তিযোগ্য অপরাধ। কোনো মুসলিম পুরুষ তালাক শব্দটি তিনবার উচ্চারণ করে স্ত্রীকে ত্যাগ করলে তার তিন বছরের জেল পর্যন্ত হতে পারে। বিলে স্ত্রী ও তার শিশুকে অস্তিত্ব ভাতা দেওয়ার সংস্থানের কথাও বলা হয়। ছোট শিশুর ক্ষেত্রে সেই অধিকার পাবেন মা। এমন সংস্থানও রাখা হয়। বিলে উল্লেখ করা হয়, মুখে, টেলিফোনে বা অন্য কোনো ইলেকট্রনিক মাধ্যমের সাহায্যে (হোয়াটস অ্যাপ বা এসএমএসের মাধ্যমে) তিন তালাক দেওয়া অবৈধ। ভারতের সুপ্রিমকোর্ট তিন তালাককে অবৈধ ঘোষণার পরও ভারতের বিভিন্ন অংশ থেকে তিন তালাক নিয়ে অভিযোগ উঠতে থাকে।