আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ২৫-০৯-২০১৮ তারিখে পত্রিকা

২১ আগস্ট মামলায় তারেকের নাম জড়ানো চক্রান্তমূলক : রিজভী

নিজস্ব প্রতিবেদক
| খবর

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা-মামলায় দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নাম জড়ানো সম্পূর্ণরূপে চক্রান্তমূলক ও সরকারপ্রধানের ক্রোধ এবং ঈর্ষার ঝাল মেটানোরই বর্ধিত প্রকাশ। সোমবার সকালে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে রিজভী এ কথা বলেন।
তিনি বলেন, আসলে জিয়া পরিবারের বিরুদ্ধে প্রতিদিনই সরকারপ্রধানের নানা ধরনের আক্রমণ নবরূপে স্ফুরিত হচ্ছে। আর কাহার আকন্দকে দিয়ে সরকার সেই আক্রমণেরই প্রকাশ ঘটাচ্ছে। এ ধরনের দলীয় সঙ্কীর্ণতায় ভোগা একজন তদন্তকারী কর্মকর্তাকে দিয়ে ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা-মামলার তদন্তের দায়িত্বভার প্রদান করা একেবারেই রাজনৈতিক উদ্দেশ্যেপ্রণোদিত। নির্দোষ তারেক রহমানসহ অন্য কর্মকর্তাদের কাল্পনিক গল্প তৈরি করে ফাঁসানোই হচ্ছে মূল উদ্দেশ্য। কাহার আকন্দ শেখ হাসিনার ইচ্ছাপূরণে সেই কাজটিই নিষ্ঠার সঙ্গে পালন করেছেন। 
আওয়ামী লীগের সুশাসনের বোধ কখনই ছিল না বলে মন্তব্য করে রিজভী বলেন, দেশ এখন আওয়ামী কু-রাজনীতির ঘোঁট পাকানো অবস্থার মধ্যে নিপতিত হয়েছে। এখন সরকারের ইচ্ছা-অনিচ্ছা অনুযায়ী আইনি প্রক্রিয়া ও বিচারিক কার্যক্রম চলে। ২১ আগস্টের গ্রেনেড হামলা-মামলা এর একটি প্রকৃষ্ট উদাহরণ।
‘গণমাধ্যমের একাংশ আওয়ামী লীগের প্রতি অবিচার করছে’ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের এমন বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় রিজভী বলেন, আমরা মনে করি অবিচার করছে না, বরং গণমাধ্যমের বিরাট অংশ সাহসের সঙ্গে দায়িত্ব পালনের চেষ্টা করছে। তবে ক্ষুদ্র একটি অংশ যে পা চাটছে ও সুবিধার ঝোল খাচ্ছে তা জনগণ দেখছে। সংবাদমাধ্যমের গলায় দড়ি ঝোলাতে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন করে ওবায়দুল কাদেরদের তৃপ্তি মিটছে না, তাই এখন গোটা গণমাধ্যমকেই পকেটে ঢোকানোর চেষ্টায় কিছুটা বেগ পাওয়াতে আফসোস করে নানা কথাবার্তা বলছেন।
তিনি বলেন, সাবেক প্রধান বিচারপতি এসকে সিনহার প্রতি সরকারের আচরণের ঘটনাগুলো প্রকাশ হওয়ায় দেশবাসীসহ বিশ^বাসী বিমূঢ় বিস্ময়ে হতবাক হয়েছে। দেশের প্রধান বিচারপতিকে যেভাবে সরকারপ্রধান থেকে শুরু করে অন্য মন্ত্রীরা হুমকি, গালিগালাজ ও লাঞ্ছিত করেছেন তাতে আওয়ামী রাজনীতির বিকৃত সংস্কৃতি আবারও জনগণের কাছে সুস্পষ্টভাবে ফুটে উঠেছে।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন, অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম আজাদ, মুহাম্মদ আবদুল আউয়াল খান, মো. মুনির হোসেন প্রমুখ।