আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ২৫-০৯-২০১৮ তারিখে পত্রিকা

ঐতিহাসিক নাটক ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব’ কলকাতায় মঞ্চস্থ

কলকাতা প্রতিনিধি
| খবর

জাতির জনক শেখ মুজিবুর রহমানের জীবন অবলম্বনে কলকাতার জ্ঞানমঞ্চে মঞ্চস্থ হয়েছে ঐতিহাসিক নাটক ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব’। রোববার এ নাট্যানুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন কলকাতা প্রেসক্লাব সভাপতি স্নেহাশিস সুর। নাটকটি যৌথভাবে প্রযোজনা করে কলকাতাসংলগ্ন বরানগর নাট্য একাডেমি এবং উত্তর কলকাতার সৃষ্টিছাড়া নাট্য সংস্থা। নাটকটি রচনা করেছেন যুক্তরাষ্ট্রপ্রবাসী বাংলাদেশি নাট্যকার খান শওকত। নাটকটি নির্দেশনা করেন রাজা সরকার।
অভিনেতা বিমান চক্রবর্তী নাটকে বঙ্গবন্ধুর চরিত্রে অভিনয় করেছেন। বিমান চক্রবর্তী জানান, বঙ্গবন্ধুর চরিত্রে অভিনয় করার আগে প্রায় দুই মাস ধরে নিজেকে তৈরি করেছিলেন তিনি। বঙ্গবন্ধুর কথা বলার ধরন, তার জীবনযাপন, তার হাঁটাচলার ভঙ্গিমা, বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধকালীন বঙ্গবন্ধুর বক্তৃতা সবকিছুই ইউটিউবসহ বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া থেকে সংগ্রহ করে রপ্ত করেন তিনি। বিমান চক্রবর্তী জানান, বঙ্গবন্ধু এমন একটা চরিত্র, যা সারা বিশ্বে বিস্ফোরণ ঘটিয়েছিলেন। এ রকম একটা চরিত্রে তিনি কেমন অভিনয় করতে পেরেছেন, সে বিচার দর্শকরাই বলবেন। তিনি বলেন, ‘এ চরিত্রে অভিনয় নিয়ে কিছু বলার স্পর্ধা আমার নেই।’
নাটকটির রচয়িতা খান শওকত বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব নামের এ নাটক লেখার জন্য ২১ বছর ধরে রীতিমতো গবেষণা করেছি আমি। এর আগে নিউইয়র্কে নাটকটির অংশবিশেষ প্রদর্শন হলেও এ প্রথম কলকাতায় পূর্ণাঙ্গ নাটক প্রদর্শিত হলো।’ কলকাতায় মঞ্চস্থ করা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে ভারতবাসীর বিশেষ অবদান ছিল। তাই কলকাতার মাটি থেকেই পূর্ণাঙ্গ নাটক মঞ্চস্থ করা হলো। এরপর ধীরে ধীরে নাটকটি বিশ্বে ছড়িয়ে পড়বে। নাটকটি প্রসঙ্গে কলকাতা প্রেসক্লাব সভাপতি সাংবাদিক স্নেহাশিস সুর বলেন, এ উপমহাদেশে যে ক’জন বাঙালি নেতৃত্ব দিয়েছেন, তার মধ্যে সবার আগে শেখ মুজিবুর রহমানের নাম উঠে আসে। তার জীবনের ওপর এ নাটক মঞ্চস্থ হওয়া অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা। নাটকটিতে আবহ সংগীত দেন মৃগনাভি চট্টোপাধ্যায়।