আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ২৭-০৯-২০১৮ তারিখে পত্রিকা

আমি কোনো সময় ক্ষমতার অপব্যবহার করিনি : রাষ্ট্রপতি

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি
| শেষ পাতা

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ বলেছেন, ছাত্রজীবন থেকেই আমি রাজনীতি শুরু করেছি। ছাত্রজীবনে বহুবার জেলও খেটেছি। ১৯৭০ সাল থেকে বারবার আপনারা আমাকে এমপি নির্বাচিত করেছেন। এমনিভাবে বিরোধী দলের উপনেতা হয়েছি, ডেপুটি স্পিকার, স্পিকার হয়েছি। এরপর ভারপ্রাপ্ত রাষ্ট্রপতি এবং পরে দ্বিতীয়বারের মতো রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হয়েছি। আমি কোনো সময় ক্ষমতার অপব্যবহার করিনি। মনমানসিকতার দিক থেকে আমার মধ্যে কোনো পরিবর্তন নেই। আমি শিকড়কে ভুলে যাইনি। শিকড়কে ভুলে গেলে মানুষ হওয়া যায় না। বুধবার বিকালে মিঠামইন উপজেলার মুক্তিযোদ্ধা আবদুল হক সরকারি ডিগ্রি কলেজ সংলগ্ন মাঠে তাকে দেওয়া গণসংবর্ধনা অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

রাষ্ট্রপতি বলেন, আমি ভুলিনি যে আমি একজন কৃষক পরিবারের সন্তান। আমার আত্মীয়-স্বজন এখনও অনেক গরিব রয়েছে। রাষ্ট্রপতি হলেই চাকরি দিতে হবে এমন কোনো কথা নেই। আমার চোখে সবাই সমান। তিনি আরও বলেন, আমি সব সময় বিদেশে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি ঊর্ধ্বে তুলে ধরার চেষ্টা করেছি। হাওরকে তুলে ধরেছি।
মিঠামইন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট আবদুস সহিদ ভূঁইয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন কিশোরগঞ্জ-৪ আসনের এমপি ও রাষ্ট্রপতির জ্যেষ্ঠ সন্তান রেজওয়ান আহম্মেদ তৌফিক, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট জিল্লুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট কামরুল আহসান শাহজাহান, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট এমএ আফজল, জেলা পরিষদের সদস্য সমীর কুমার বৈষ্ণব, মিঠামইন সদর ইউপি চেয়ারম্যান শরীফ কামাল প্রমুখ। এরপর সন্ধ্যায় ‘রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ অডিটরিয়ামে’ রাষ্ট্রপতি গণ্যমান্য ব্যক্তিদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন।