আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ২৮-০৯-২০১৮ তারিখে পত্রিকা

চট্টগ্রামে পাঁচ পুলিশের বিরুদ্ধে ছিনতাই মামলা

চট্টগ্রাম ব্যুরো
| শেষ পাতা
পটিয়া থানা পুলিশের পাঁচ সদস্যের বিরুদ্ধে রিগান আচার্য নামে এক আইনজীবীর কাছ থেকে সাড়ে ৮ হাজার টাকা ছিনতাইয়ের অভিযোগে আদালতে মামলা হয়েছে। তবে পুলিশ জানিয়েছে, গভীর রাতে মদ্যপ অবস্থায় রিগান আচার্যকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যাওয়ার পর ছাড়া পেয়ে তিনি উল্টো পুলিশের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনেছেন। বৃহস্পতিবার চট্টগ্রামের জেলা ও দায়রা জজ মো. ইসমাইল হোসেনের আদালতে মামলাটি করেন রিগান আচার্য। বাদীর আইনজীবী মানস দাশ জানান, আদালত মামলাটি গ্রহণ করে দুর্নীতি দমন কমিশনকে (দুদক) বিধিমোতাবেক তদন্ত করতে নির্দেশ দিয়েছেন। অভিযুক্ত পাঁচ পুলিশ সদস্য হলেন পটিয়া থানার এসআই খোরশেদ, এএসআই খাজু মিয়া, এএসআই মো. মাসুম, এএসআই মো. বশির এবং কনস্টেবল মো. হুমায়ুন। রিগান আচার্য জানান, গত ১৭ সেপ্টেম্বর বিশ্বকর্মা পূজা শেষে ধলঘাটের শ্বশুরবাড়ি থেকে নগরীর বাকলিয়ায় বাসায় ফিরছিলেন তিনি। ধলঘাট বাজারে একটি লেগুনা গাড়ি দেখতে পেয়ে থামার জন্য সিগন্যাল দেন। এ সময় ওই গাড়ি থেকে কয়েকজন পুলিশ সদস্য নেমে তাকে ঘিরে ধরেন এবং পকেট থেকে সাড়ে ৮ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেন। এরপর তাকে জোরপূর্বক গাড়িতে তুলে পটিয়া থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে নেওয়ার সময় ছেড়ে দেওয়ার কথা বলে তার কাছ থেকে ঘুষ দাবি করা হয়। রিগানের দাবি, দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত থানায় বসিয়ে রেখে পরে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়। পটিয়া থানার ওসি শেখ মোহাম্মদ নেয়ামত উল্লাহ বলেন, মদ্যপ অবস্থায় একা রাস্তায় দাঁড়িয়েছিলেন রিগান আচার্য। এ অবস্থায় সড়কে দুর্ঘটনার শিকার হতে পারেন, এ আশঙ্কায় তাকে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। সে রাতে তাকে ওয়াশ করানো হয়। হাসপাতালের এ সংক্রান্ত সনদও আছে। ওসি জানান, জেলা আইনজীবী সমিতির নেতাদের অনুরোধে মামলা না করে মুচলেকা নিয়ে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছিল।