আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ২৮-০৯-২০১৮ তারিখে পত্রিকা

পাঁচ জেলায় সড়ক দুর্ঘটনা

যুবলীগ নেতা ও ছাত্রীসহ নিহত ৮

আলোকিত ডেস্ক
| খবর
পাঁচ জেলায় সড়ক দুর্ঘটনায় মারা গেছেন আটজন। বুধবার রাত ও বৃহস্পতিবার এসব ঘটনায় টাঙ্গাইলে রংপুর জেলা যুবলীগ নেতা ও স্কুলছাত্রী, গোপালগঞ্জে পৃথক ঘটনায় তিনজন, চট্টগ্রামে পৃথক ঘটনায় দুজন এবং রূপগঞ্জে কাভার্ডভ্যান চাপায় মোটরসাইকেল আরোহী মারা গেছেন। ব্যুরো ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরÑ টাঙ্গাইল : সদর উপজেলার করটিয়া ও বঙ্গবন্ধু সেতু-ঢাকা মহাসড়কে ভূঞাপুর লিংক রোড এলাকায় পৃথক ঘটনায় দুজন মারা গেছেন। সদর উপজেলার করটিয়ায় ট্রাকচাপায় স্কুলছাত্রী নাফিজা আক্তার মারা গেছে। সে করটিয়ার আবেদা খানম স্কুল অ্যান্ড কলেজের নবম শ্রেণির ছাত্রী ছিল ও বাসাইলের কাশিল গ্রামের মেহেদী হাসান রানার মেয়ে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, নাফিজা স্কুল ছুটির পর কোচিং ক্লাস করে সিএনজিচালিত অটো রিকশাযোগে বাড়িতে যাওয়ার জন্য রাস্তা পার হওয়ার সময় ইটভর্তি দ্রুতগতির একটি ট্রাক নাফিজাকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। এদিকে লিংক রোড এলাকায় ট্রাক-জিপের মুখোমুখি সংঘর্ষে রংপুর জেলা যুবলীগের সভাপতি ও মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্সের পরিচালক এইচএম রাশেদুজ্জামান জুয়েল মারা গেছেন। তিনি রংপুর কোতোয়ালি থানার মুন্সিপাড়া গ্রামের মোয়াজ্জেম হোসেনের ছেলে। বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব থানার ওসি মোশারফ হোসেন বলেন, রংপুর থেকে জুয়েল একটি পাজারো জিপে করে ঢাকার দিকে যাচ্ছিলেন। ঘটনাস্থলে পৌঁছলে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা উত্তরবঙ্গগামী সিমেন্টভর্তি একটি ট্রাকের সঙ্গে তাকে বহনকারী জিপের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে জুয়েল, জিপের চালক ও তার সহকারী এবং ট্রাকের দুজন আহত হন। পরে তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হলে চিকিৎসক জুয়েলকে মৃত ঘোষণা করেন। গোপালগঞ্জ : মুকসুদপুর উপজেলার বাটিকামারী ও সদর উপজেলার ভোজেরগাতিতে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় গৃহবধূসহ তিনজন মারা গেছেন। তারা হলেন গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর উপজেলার বিশ্বম্ভরদী গ্রামের কুদ্দুস মিয়ার স্ত্রী মনোয়ারা বেগম, বাগেরহাটের হাসেম আলীর ছেলে বাসের হেলপার সাইফুল ইসলাম ও কোটালীপাড়া উপজেলার মোকসেদ আলীর ছেলে সবেদ আলী। মুকসুদপুর থানার ওসি মোস্তফা কামাল পাশা জানান, বরইতলা থেকে কাশিয়ানীর ভাটিয়াপাড়াগামী মা-বাবার দোয়া নামে একটি লোকাল বাস চাওচা এলাকার শিশুতলা মোড়ে পৌঁছলে অটোভ্যানকে সাইড দিতে গিয়ে চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে একটি গাছের সঙ্গে ধাক্কা খায়। এ সময় মনোয়ারা মারা যান। অন্যদিকে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুল ইসলাম জানান, কোটালীপাড়া থেকে গোপালগঞ্জ আসার পথে একটি লোকাল বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার খাদে পড়ে যায়। এতে ওই বাসের অন্তত ৩০ যাত্রী আহত হন। পরে খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা আহতদের উদ্ধার করে গোপালগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসে। এরমধ্যে মারাত্মক আহত ২৫ জনকে গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পরে মারাত্মক আহত বাসের হেলপার সাইফুলসহ দুজনকে খুলনা নেওয়ার পথে সাইফুল ও হাসপাতালে সবেদ আলী মারা যান। চট্টগ্রাম : নগরীতে পৃথক দুটি দুর্ঘটনায় দুজন মারা গেছেন। বায়েজিদ বোস্তামী থানার অক্সিজেন এলাকায় ডেমু ট্রেনে কাটা পড়ে মোতাহের হোসেন নামে একজন মারা যান। এদিকে নগরীর আখতারুজ্জামান ফ্লাইওভারে দুটি প্রাইভেট কারের রেসারেসিতে পড়ে মারা যান মোটরসাইকেল আরোহি অভিজিৎ দত্ত অভি। রেলওয়ে ষোলশহর স্টেশনের মাস্টার শাহাব উদ্দিন জানান, মোতাহের বালুচরা কাশেম ভবন এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকতেন। তার গ্রামের বাড়ি ময়মনসিংহ। বায়েজিদ বোস্তামী থানার ওসি আতাউর রহমান খন্দকার বলেন, ট্র্রেনে কাটা পড়ার বিষয়টি রেলওয়ে পুলিশকে জানিয়েছি। তারা ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। অভি নগরীর গোসাইলডাঙ্গা শ্মশান কালীবাড়ি উন্নয়ন পরিষদের সদস্য এবং কর্ণফুলী মার্কেটের অভি মোবাইল সার্ভিসিং নামে একটি প্রতিষ্ঠানের মালিক। তিনি বোয়ালখালীর গোমদ-ী দত্ত পাড়ার চন্দন দত্তের ছেলে। কাভার্ডভ্যান চাপায় যুবক নিহতের জের রূপগঞ্জ : নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে কাভার্ডভ্যান চাপায় মোটরসাইকেল আরোহী যুবক মারা যাওয়ায় বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছে এলাকাবাসী। তারা ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে অবস্থান নিয়ে যানবাহন ভাংচুর, অগ্নিসংযোগসহ কাভার্ডভ্যান চালককে গণধোলাই দেয়। পরে বিক্ষুব্ধরা সড়কে অবস্থান নিয়ে প্রায় দেড়ঘণ্টা মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে। এ সময় সড়কের উভয় পাশে দীর্ঘ যানজট তৈরি হয়। এলাকাবাসী জানায়, উপজেলার মুড়াপাড়া বাজারের ইজারাদার আবদুল হাই এবং স্থানীয় টঙ্গীরঘাট মাহমুদাবাদ এলাকার আজগর আলী ফকিরের ছেলে ও কনস্ট্রাকশন ঠিকাদার মিলন মিয়া মোটরসাইকেলে তেল নিতে কর্নগোপ এলাকায় অবস্থিত শুভ সিএনজি পাম্পে আসেন। তেল নিয়ে ফেরার পথে মোটরসাইকেলটি রাস্তায় ওঠামাত্র একটি পণ্য বোঝাই কাভার্ডভ্যান মোটরসাইকেলকে চাপা দেয়। এতে চাকায় পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই মিলন মিয়া মারা যান। চাঁদপুর : চাঁদপুর-কুমিল্লা আঞ্চলিক মহাসড়কে প্রাইভেট কার-সিএনজি স্কুটারের মুখোমুখি সংঘর্ষে পাঁচজন যাত্রী গুরুত্বর আহত হয়েছেন। আহতরা হলেন- হাজীগঞ্জ মাতুল গ্রামের মোকলেস সরদারবাড়ির শফিক সরদার, রামপুর ইউনিয়নের মৃত সিরাজুল হকের ছেলে জসিম, মতলব আমিরাবাদের মৃত মজিদ মিয়ার স্ত্রী জয়নুব খাতুন, বাবুর হাট এলাকার ছোবান শেখ ও ঘোষের হাট এলাকার খোকন বেপারি।