আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ২৯-০৯-২০১৮ তারিখে পত্রিকা

এক যুগ পর ফিরে পেলেন মেয়েকে

চাঁদপুর প্রতিনিধি
| দেশ

চাঁদপুর জেলা পুলিশ সুপার মনিকে তার বাবার কাছে তুলে দেন- আলোকিত বাংলাদেশ

চাঁদপুরে একযুগ পর হারিয়ে যাওয়া মেয়েকে ফিরে পেলেন বাবা আবদুস সাত্তার। চাঁদপুর সদর উপজেলার হানারচর ইউনিয়নের বাসিন্দা আবদুস সাত্তারের শিশুকন্যা নার্গিস আক্তার মনিকে এক যুগ আগে সংসারের অভাব-অনটনের কারণে এক আত্মীয়ের বাড়িতে ঢাকায় কাজের জন্য দেওয়া হয়। নির্যাতন থেকে বাঁচতে সেখান থেকে পালাতে গিয়ে হারিয়ে যায় মনি। দীর্ঘ ১৩ বছর পর পুলিশের সহযোগিতায় মেয়েকে ফিরে পেয়েছেন বাবা আবদুস সাত্তার। বৃহস্পতিবার রাতে চাঁদপুর জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে মনিকে আনুষ্ঠানিকভাবে তার বাবা আবদুস সাত্তারের কাছে তুলে দেওয়া হয়। এ বিষয়ে পুলিশ সুপার জিহাদুল কবির বলেন, মনির জীবন থেকে হারিয়ে যাওয়া ১৩ বছর আমরা ফিরিয়ে দিতে পারব না। তবে দীর্ঘ বছর পর তার বাবার কাছে ফিরিয়ে দিতে পেরেছিÑ এতেই আমরা আনন্দিত। এ সময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) জাহেদ পারভেজ চৌধুরী, চাঁদপুর মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মাহবুবুর রহমান মোল্লা উপস্থিত ছিলেন। আবদুুস সাত্তার সদর উপজেলার ইব্রাহীমপুর ইউনিয়নের মেঘনা নদীর পশ্চিমপাড় চরের বাসিন্দা। পুলিশ সুপার জিহাদুল কবির বলেন, আমার এক পরিচিতের মাধ্যমে নার্গিস আক্তার মনির সম্পর্কে জানতে পেরে বিষয়টি নিয়ে চিন্তা করি। পরে পুলিশ পরিদর্শক তদন্ত চাঁদপুর মডেল থানা মাহবুব সন্ধান শুরু করেন। অনুসন্ধানে হরিণঘাট এলাকার সাবেক মেম্বার হাসানের সহায়তায় ১২ জন সাত্তারের সন্ধান পাওয়া যায়। দুঃখের বিষয় হলো, মনির বাবা সাত্তারের সন্ধান কেউ দিতে পারে না। পরে জানা যায়, মূল গ্রাম থেকে বসতি ছেড়ে চর এলাকায় বসতি করেছে এক সাত্তার। বুধবার এসপি অফিসে আনা হয় তাকে। কথা শুনে কিছুটা মিলও পাওয়া যায়। এরপর ভিডিও কলের মাধ্যমে ১৩ বছর পর বাবা-মেয়ের সাক্ষাৎ হয়।