আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ২৯-০৯-২০১৮ তারিখে পত্রিকা

কক্সবাজারে স্বাস্থ্যমন্ত্রী

নির্বাচন ঘোলাটে করার অপচেষ্টা দমন করা হবে

কক্সবাজার প্রতিনিধি
| শেষ পাতা
১৪ দলের মুখপাত্র ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, দল নেই, আদর্শ নেই, এমন কিছু নেতা জাতীয় ঐক্যের কথা বলে নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করার অপচেষ্টায় লিপ্ত হয়েছে। সাহস থাকলে মাঠে আসুন, নির্বাচন করুন। পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করবেন না। নির্বাচন ঘোলাটে করার অপচেষ্টা জনতার সহায়তায় শক্ত হাতে দমন করা হবে। জঙ্গিবাদ লালন ও মদতকারীদের প্রত্যাখ্যান করবে জনগণ। শুক্রবার দুপুরে কক্সবাজারের উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে নাসা গ্রুপের নির্মিত হাসপাতাল উদ্বোধন শেষে আয়োজিত সমাবেশে স্বাস্থ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন। স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীর নির্যাতনে পালিয়ে আসা ১১ লাখ রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দিয়ে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা মানবতার মা হিসেবে বিশ্বমাঝে পরিচিতি পেয়েছে। রোহিঙ্গা ও স্থানীয়দের চিকিৎসাসেবায় নির্মিত এ হাসপাতালে অচিরেই অ্যাম্বুলেন্স ও এক্সরে মেশিন সংযুক্ত করা হবে। দেশব্যাপী হাসপাতালে জনবল ও চিকিৎসক সংকট দূরীকরণের চেষ্টা চলছে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, শিগগিরই সারা দেশে সাত হাজার ডাক্তার নিয়োগ দেওয়া হবে। মোহাম্মদ নাসিম বলেন, বিশ্বকাপ ফুটবলে নেইমার, মেসি গোল মিস করেছে কিন্তু শেখ হাসিনা নির্বাচনি মাঠে গোল ঠিকই দেবেন। খেলার মাঠে ফাউল করলে লাল কার্ড খাওয়ার চিন্তা মাথায় রেখেই মাঠে নামুন। কক্সবাজারের চারটি আসনেই নৌকার জয় আশা করে মন্ত্রী বলেন, পর্যটন নগরীতে বেশ কয়েকটি মেগা প্রকল্প চলছে। এসব উন্নয়ন কর্মযজ্ঞের বিনিময় হিসেবে শেখ হাসিনা সরকারকে আবারও জয়ী করুন। কক্সবাজারের সিভিল সার্জন ডা. আবদুস ছালামের সভাপতিত্বে জনসভায় সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদি, অতিরিক্ত সচিব (স্বাস্থ্য) বাবলু কুমার সাহ, লাইন ডিরেক্টর প্রফেসর ডা. মো. আবুল হাসেম, নাসা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক খন্দকার মো. সাইফুল আলম বক্তব্য রাখেন। কক্সবাজার সদর আসনের সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল, উখিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. নিকারুজ্জামান চৌধুরী, উখিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যক্ষ হামিদুল হক চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক ও রাজাপালং ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী, জেলা পরিষদের সদস্য আশরাফ জাহান কাজল, উখিয়া ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ এম ফজলুল করিমসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, ব্যবসায়ী, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসহ সর্বস্তরের মানুষ জনসভায় উপস্থিত ছিলেন।