আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ২৯-০৯-২০১৮ তারিখে পত্রিকা

বিবৃতিতে ফখরুল

সরকার জেলগেটে গ্রেপ্তারের জঘন্য খেলায় অবতীর্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক
| প্রথম পাতা
বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ৫ জানুয়ারি মার্কা প্রহসনের নির্বাচনের মতো জোর করে আওয়ামী লীগ আবারও ক্ষমতায় টিকে থাকতে চায়। এজন্য বিএনপিসহ বিরোধী নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে বানোয়াট মামলা দায়ের ও গ্রেপ্তারের পাশাপাশি মুক্তিলাভের পরও জেলগেট থেকে গ্রেপ্তারের জঘন্য খেলায় অবতীর্ণ হয়েছে অবৈধ সরকার। শুক্রবার দলের সহ-দফতর সম্পাদক মুহম্মদ মুনির হোসেন স্বাক্ষরিত গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে একথা বলেন মির্জা ফখরুল। মুক্তিলাভের পরও শেরপুর জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মো. হযরত আলীকে বৃহস্পতিবার জেলগেট থেকে গ্রেপ্তারের ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে এ বিবৃতি দেন মির্জা ফখরুল। তিনি আরও বলেন, দেশব্যাপী নজিরবিহীনভাবে এ ধরনের মানবতাবিরোধী কর্মকা- সংঘটনের জন্য বর্তমান আওয়ামী সরকার ধিকৃত হচ্ছে, নিন্দিত হচ্ছে। মানুষের মৌলিক মানবাধিকারকে তোয়াক্কা না করে দেশ শাসনে এক ব্যক্তির ইচ্ছা পূরণকেই অতিমাত্রায় প্রাধান্য দেওয়ার কারণে দেশ এখন গভীর সংকটে নিপতিত। তিনি বলেন, বর্তমান অবৈধ সরকারের ভয়াবহ দুঃশাসন ও অনাচারের করাল গ্রাস থেকে এখনই দেশকে মুক্ত করতে দলমত নির্বিশেষে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে এগিয়ে আসতে হবে। নইলে জাতি হিসেবে আমাদের অস্তিত্ব ধ্বংস হয়ে যাবে। মির্জা ফখরুল অবিলম্বে হযরত আলীর বিরুদ্ধে করা অসত্য মামলা প্রত্যাহার ও তার নিঃশর্ত মুক্তির জোর দাবি করেন। একই সঙ্গে জামিনে মুক্তিলাভের পরও প্রতি দিন দেশব্যাপী বিএনপি নেতাকর্মীদের জেলগেট থেকে গ্রেপ্তার বন্ধ ও অবিচার-অনাচার বন্ধের আহ্বান জানান তিনি। কাগুজে নিবন্ধনের ভয় দেখিয়ে লাভ নেই Ñরিজভী : নিবন্ধন ঝুঁকির কথা বলে প্রধান নির্বাচন কমিশনার বিএনপিকে ভয় দেখাচ্ছেন বলে মন্তব্য করেছেন দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী। শুক্রবার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরও বলেন, প্রধান নির্বাচন কমিশনার বিএনপিকে ভয় দেখাচ্ছেন, যাতে বিএনপি শেখ হাসিনার অধীনে একতরফা বাকশালী নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে। কাগুজে নিবন্ধন নয়, জনগণের বিচারই রাজনৈতিক দলের টিকে থাকার মাপকাঠি বলেও মন্তব্য করেন তিনি। সিইসির উদ্দেশে তিনি বলেন, জনপ্রিয় রাজনৈতিক দলকে কাগুজে নিবন্ধনের ঝুঁকির কথা বলে লাভ হবে না। জনগণের বিচারই রাজনৈতিক দলের টিকে থাকার মাপকাঠি। সিইসি ক্ষমতাসীনদের দাসত্ব করতে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেন মন্তব্য করে রিজভী বলেন, আমি সিইসিকে জানিয়ে দিতে চাই, যদি বিএনপির নিবন্ধন নিয়ে কোনো অশুভ পরিকল্পনা থাকে, অবৈধ সরকারের পাশাপাশি আপনাকেও পতনের ঝুঁকিতে পড়তে হবে খুব শিগগিরই। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবুল খায়ের ভুঁইয়া, যুগ্ম মহাসচিব মাহবুবউদ্দিন খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, কেন্দ্রীয় নেতা আবদুস সালাম আজাদ, মুনির হোসেন, আবদুল বারী ড্যানী প্রমুখ।